টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

টেকনাফের কাটাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় সাত শ শিক্ষার্থীর চারজন শিক্ষক !

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২ অক্টোবর, ২০১৩
  • ১১৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

শাহীনশাহ, টেকনাফ:::: টেকনাফের হোয়াইক্যং কাটাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৭শত শিক্ষার্থীর পড়ালেখা চলছে মাত্র ৪ জন শিক্ষক নিয়ে। পাশাপাশি প্রধান শিক্ষকের শূণ্য পদসহ নানাবিধ সমস্যা বিদ্যালয়টির। সরেজমিন অনুসন্ধানে জানা যায়, ১৯৭৩ সালে ৪০ শতক জমিতে কাটাখালীর অজপাঁড়া গায়ে বিদ্যালয়টি নির্মিত হয়। শুরু থেকে বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীর ভর্তি সংখ্যা ছিল সন্তেষজনক। বর্তমানে শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় ৭শত। শিশু শ্রেণীসহ অন্যান্য সকল শ্রেণীতেই একাধিক শাখা রয়েছে। বিদ্যুৎ, পানি, প্রাচীর বেঞ্চসহ নানাবিধ সমস্যায় জর্জরিত বিদ্যালয়টির। শ্রেণীকক্ষে বেঞ্চের অভাবে প্রতি বেঞ্চে ৫/৬জন শিক্ষার্থী ঠেলাঠেলিভাবে বসে কোনরকম কাস নিতে দেখা গেছে। বিভিন্ন সমস্যায় জর্জরিত হওয়ায় সুষ্ঠু পাঠদান ব্যাহত হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন অভিভাক ডা,লুকমান। নিয়মানুযায়ী ৪০জন শিক্ষার্থীর জন্য ১জন শিক্ষক থাকার কথা থাকলেও শিক্ষক সংকটসহ নানাবিধ সমস্যার কারনে নিয়মটি বাস্তবায়ন হচ্ছেনা বলে মনে করেন স্থানীয় সচেতন মহল। বিদ্যালয় সুত্রে জানা যায়, প্রধান শিক্ষকের পদ শূণ্য থাকায় বিভিন্ন সময় ভার প্রাপ্ত দায়িত্ব নিয়ে শিক্ষক মোঃ এহসানের উপজেলা পর্যায়ে বিভিন্ন প্রোগ্রামে যাওয়ার করণে ৩ জন শিক্ষকের পাঠদানে হিমশিম খেতে হয়। একাধিক সমস্যা থাকা সত্তেও পরীক্ষার ফলাফলের হার এবং পাঠদান সন্তোষজনক বলে দাবী করেন বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান মোঃ এহসান। পাশাপাশি তিনি দ্রুত সমস্যা সমধানের জন্য কর্তৃপক্ষের সুনজর কামনা করেন। এ ব্যাপারে জানতে চাইলে টেকনাফ উপজেলা শিক্ষা অফিসার সুব্রত কুমার ধর জানিয়েছেন, শিক্ষক সংকট নিরসনের জন্য জোর প্রচেষ্টা চলছে। কিছুদিনের মধ্যে শিক্ষক নিয়োগ হবে। পাশাপাশি নানাবিধ সমস্যার জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষেকর নিকট লেখা হয়েছে।

প্রতিবেদক ঃ শাহীনশাহ, টেকনাফ মো-০১৮১২৬০৯০৯৮

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT