টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

টেকনাফের উপকূল দিয়ে আবারো ১১০ জনের মালয়েশিয়া যাত্রা : সিন্ডিকেটের প্রভাবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দৃষ্টিচ্যু

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ৪ জানুয়ারি, ২০১৩
  • ১৫৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে


হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ।
টেকনাফের উপকূলীয় বাহারছড়া ও সাবরাং পয়েন্ট দিয়ে আবারো ১১০ জনের যাত্রী নিয়ে গভীর রাতে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছে। স্থানীয় লোকজন এর সত্যতা স্বীকার করলেও প্রশাসনিকভাবে এর সত্যতা পাওয়া যাচ্ছেনা। স্থানীয় সচেতনমহল মনে করছেন মালয়েশিয়াগামীদের বেশীরভাগ যাত্রী  রোহিঙ্গা । কয়েকটি আদম ঘাটের মাধ্যমে এরা অনুপ্রবেশ করছে বলে অভিযোগ দীর্ঘদিনের। তবে মালয়েশিয়া আদম পাচারকারী শক্তিশালী সিন্ডিকেটের প্রভাবে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার দৃষ্টি ভিন্ন দিকে যাচ্ছে বলে গুঞ্জন উঠেছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও খোঁজ নিয়ে জানাযায়- ৪ জানুয়ারী ভোররাত ২টারদিকে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্প হতে রাতের আঁধারে পাহাড়ি পথ দিয়ে ৫০/৬০ জনের একটি রোহিঙ্গা গ্র“প বড়ডেইল এলাকা দিয়ে স্থানীয় দালালের সহায়তায় বোটের মধ্যে উঠেন। অপরদিকে সকাল হতে ৫/৭জন করে গাড়িযোগে টেকনাফের সাবরাং এলাকার চান্দুলী পাড়া পয়েন্ট দিয়ে একই কায়দায় স্থানীয় দালালদের সহায়তায় ৪০/৫০জনের একটি গ্র“প শীপ ধরার জন্য স্থানীয় বোটের মধ্যে উঠেন। এসব কান্ড ঘটে যাওয়ার পরও দায়িত্বরত বিজিবি, কোস্টগার্ড, পুলিশ,আনসার এবং গ্রাম পুলিশ সদস্যদের কিভাবে ফাঁকি দিয়ে চোরাই পথে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে গমন করতে পারে তা নিয়ে নানা প্রশ্নের সূত্রপাত হয়েছে। স্থানীয় সচেতন মহল মনে করছেন- মালয়েশিয়া আদম পাচারকারী সিন্ডিকেট এতই শক্তিশালী হয়ে উঠেছে যে, চিহ্নিত কয়েকটি আদম ঘাট দিয়ে রোহিঙ্গারা মালয়েশিয়া গমনের জন্য অনুপ্রবেশ করে। পাচারকারীদের সহযোগিরা করে লোক জমায়েত করে নয়াপাড়া শরণার্থী ক্যাম্পভিত্তিক মালয়েশিয়া আদম পাচারকারী সিন্ডিকেট। স্থানীয় কয়েকটি প্রভাবশালী চক্রের ছত্র-ছায়ায় নয়াপাড়ার রোহিঙ্গা  ইদ্রিস,ছিয়লের ঘিরা বুইজ্জা,আবুল আলম, বি-ব¬কের বাইট্টা জাফর, মোহাম্মদ আলম মাঝি,ইয়াবা ব্যবসায়ী জুবায়ের ভাই, ক্যাম্প ইনচার্জের বাবুর্চি সি ব¬কের  গুরা মিয়া, এইচ ব্লকের মহিলা কমিটির সদস্য নুর বাহার, মাহমুদুল হাসান,হাসান আহমদ, ছৈয়দ আহমদ, জামাল মাঝি, দোকানদার শাহ আলম, কমিটি ফয়েজ, দাড়িওয়ালা মোঃ সালাম, ডি ব¬কের মোঃ সালাম মাঝি, মৌলভী কামাল, লোকমান মাঝি,ই ব¬কের আন্ডাইংগা লিডার মোহাম্মদ আলম, আই ব¬কের সোলতান হাজি, এবাদুল¬াহ, মৌলভী মোহাম্মদ হোছনের ছেলে তারেক,সহ ২০/২৫জনের শক্তিশালী সিন্ডিকেট লুকিয়ে রেখে।  আদম বোট ও ট্রলারে উঠার সময় খবর দিলেও বিভিন্ন খুঁড়া অজুহাতে রহস্যজনক কারনে ধরা-ছোয়াঁর বাইরে রাখে। আবার এসব উল্টো সংবাদদাতাদের হয়রানি করছে বলে হাঁকাবকা করে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT