টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
রোহিঙ্গারা কন্যাশিশুদের বোঝা মনে করে অধিকতর বন্যার ঝূঁকিপূর্ণ জেলা হচ্ছে কক্সবাজার টেকনাফে মুজিববর্ষ উপলক্ষ্যে ৩০ পরিবারকে প্রধানমন্ত্রীর উপহার জমি ও ঘর হস্তান্তর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারদের দায়িত্ব নিয়ে ডিসিদের চিঠি আগামীকাল ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন (তালিকা) বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান প্রধান টেকনাফ উপজেলা কমিটি গঠিত: সভাপতি, সালাম: সা: সম্পাদক: ইসমাইল আজ বিশ্ব শরণার্থী দিবস মিয়ানমারে ফেরা নিয়ে উদ্বেগ-উৎকণ্ঠায় রোহিঙ্গারা ব্যাটারিচালিত রিকশা-ভ্যান বন্ধের সিদ্ধান্ত: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ হাসিনা যতদিন আছে, ততদিন ক্ষমতায় আছি: হানিফ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ

টেকনাফের ইয়াবা ডিলারেরা অপপ্রচার চালাচ্ছে পুলিশের বিরুদ্ধে : পুলিশ বেকাদায়

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বুধবার, ২৮ আগস্ট, ২০১৩
  • ৪৮০ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

মোঃ আশেক উল্লাহ ফারুকী,টেকনাফ ### saiful asi teknafটেকনাফ সীমান্তের বিভিন্ন এজেন্সী কর্তৃক ইয়াবা আটক সংক্রান্ত বিষয়ে সংশ্লিষ্ট ইয়াবা আটককারী সংস্থাকে বিপাকে ফেলার উদ্দেশ্যে প্রকৃত ইয়াবা মালিকেরা গুজব ছড়িয়ে ধুম্রজাল সৃস্টি করে গোলাও পানিতে মাছ শিকার করার গুরতর অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা যায়- ইয়াবা আটকে বিজিবি, কোস্টগার্ড, র‌্যাব এর পাশাপাশি পুলিশ প্রশংসনীয় অভিযান পরিচালনা করে ইয়াবার চালান আটক করতে সম হয়। কিন্তু পুলিশ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সীমান্তের বিভিন্ন এলাকা থেকে ইয়াবা চালানসহ পাচারকারীকে আটক করলেও ইয়াবা গডফাদারেরা থাকে ধরাছোয়ার বাইরে। পুলিশের ইয়াবা অভিযান   অব্যহত থাকার ফলে ইয়াবার গডফাদারেরা পড়ে যায় বেকাদায়। পুলিশকে বেকায়দায় ফেলার উদ্দেশ্যে ইয়াবার গডফাদারেরা  ইয়াবার পরিমাণ বেশি আছে মর্মে গুজব ছড়িয়ে দেয়। ফলে টেকনাফ থানার পুলিশ ইয়াবা অভিযান এবং আটক করতে গিয়ে তারা নিরুতসাহিত হয়। এনিয়ে টেকনাফ সীমান্তে পুলিশের উপর বদনাম ছড়িয়ে দেয়। স্থানীয় ও জাতীয় সংবাদ পত্রে সাম্প্রতিক ইয়াবাসহ পাচারকারী আটক সংক্রান্ত বিষয়ে একটি সংবাদ পরিবেশিত হয়। প্রকাশিত সংবাদের একটি অংশ সত্য নয় বলে টেকনাফ থানা সূত্রে জানা গেছে। এদিকে টেকনাফ মডেল থানার এএসআই শরীফুল ইসলাম ইয়াবা উদ্ধার ও মানবপাচার প্রতিরোধে অভিযান পরিচালনা করে প্রশংসিত হয়েছেন। তার এই অভিযানকে নসাৎ করার জন্য টেকনাফ সীমান্তের ইয়াবার গডফদারেরা মরিয়া হয়ে এখন তারা বিভিন্ন অপপ্রচারে লিপ্ত রয়েছে। যদিও ইয়াবা পাচারকারীরা তার অভিযান সহ্য করতে না পারলেও সীমান্তের সচেতন মহল তার কৃতকর্মের প্রতি সাধুবাদ জানিয়েছেন। মালয়েশিয়া আদম পাচার প্রতিরোধে বিভিন্ন সোর্স তৈরী করে ইয়াবা, ডাকাত ও  আদম পাচার দালাল গ্রেফতারে তিনি জীবনবাজি রেখে সাহসিকতার পরিচয় দিয়েছেন অনেক কাজে।এছাড়া ডাকাতি, চুরি, খূন, রাহাজানি, নারী নির্যাতন, ধর্ষন মামলার বেশ কয়েকজন পলাতক আসামী ও গ্রেফতার করে বিশেষ অবদান রেখেছেন। শাহপরীরদ্বীপ, সাবরাং, টেকনাফ, হ্নীলা, হোয়াইক্যং, বাহারছড়াসহ বিভিন্ন জায়গায় উর্দ্ধতন কর্তৃপরে নির্দেশে সততার সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। অপরদিকে হরতালেও থানার বড় বড় অপারেশনে তার যথেষ্ট ভূমিকা রয়েছে। উল্লেখ্য, তিনি সাহকিতার সহিত টেকনাফ কুলালপাড়া  থেকে শুরু করে টেকনাফ নাইট্যংপাড়া ওঠনী পর্যন্ত ইয়াবা ভর্তি গাড়ি ধাওয়া করে ১৬ হাজার ইয়াবা উদ্ধার করে। প্রত্যদর্শী সূত্রে জানা যায়- ধাওয়ার সময় তিনি যেভাবে মোটরসাইকেল চালিয়েছিলেন তা বলার মত নয়। কিন্তু ড্রাইভারের অবস্থা গুরুতর, গাড়ি ও খাদে পড়ে গিয়েছিল।  দ্রুত গতিতে তিনি উক্ত কাজ সম্পন্ন করে গাড়ির ভিতরে বিশেষ কায়দায় লুকিয়ে রাখা ইয়াবা চালান উদ্ধার করে। তিনি ােভে সহিত বলেন Ñ আমার উপর অর্পিত দায়িত্ব জীবন মরণ বাজি রেখে ইয়াবা উদ্ধার করেছি। থানা থেকে প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়- বিগত ১৮ মাসে  ও আগষ্ট মাসে এ পর্যন্ত ৩টি পৃথক মামলায় ১৭ হাজার ২০০ পিস  ইয়াবা উদ্ধার করে। এটাই পুলিশের ইয়াবা আটকের দ্বিতীয় বড় চালান। চলতি বছর জুলাই মাসে টেকনাফ থানার ৪টি পৃথক মামলায় ২২০০ পিস ইয়াবা, ২টি মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেফতার, ১০টি অন্যন্য মামলার গ্রেফতারী পরোয়ানা, পলাতক আসামী গ্রেফতার করেছে। টেকনাফের দূর্ধর্ষ ডাকাত কালু, নজির আহমদ, আবদুল মালেক, পেঠান, নুরুল আলমকে গ্রেফতার করে তিনি প্রশংসিত হয়েছেন। এছাড়া রঙ্গিখালী, লেদা ,জদিমুরা এলাকায় ডাকাতের নিয়ে বন্দুকযুদ্ধসহ রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ডাকাত ও মালয়েশিয়া আদম পাচার নিয়ন্ত্রণ থেকে শুরু করে হ্নীলা, ওয়াব্রাং, কেরুণতলী এলাকায়  ডাকাত প্রতিরোধ অগ্রনী ভূমিকা রাখছেন। তিনি সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে। তিনি সর্বদা প্রকৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে অবস্থানে নিয়েছে । এ যাবত তার বিরুদ্ধে কোন পত্র-পত্রিকায় কোন লেখা হয়নি। সম্প্রতি ইয়াবা আটক মিথ্যা, বানোয়াট  কাল্পনিক সংবাদ প্রকাশিত করেছে। পুলিশ বাহিনীর ভূমিকায়  তার দায়িত্বে আইন শৃঙ্খলা রার্থে অকান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছে। তা টেকনাফবাসীর জন্য অনুকরণীয় ও দৃষ্টান্ত হবে। ###

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT