হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয়প্রচ্ছদ

জনগণের ওপর পুলিশের অহেতুক কর্তৃত্ব চলবে না: আইজিপি

পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক বলেছেন, ‘জনগণের ওপর পুলিশের অহেতুক কর্তৃত্ব চলবে না। কারণ জনগণের টাকায় পুলিশের বেতন ভাতা হয়। কমিউিনিটি পুলিশিং সদস্যদের মূল্যায়ন করতে হবে। কারণ তারা নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে। যে সব থানায় ওসিরা কমিউনিটি পুলিশিং সদস্যদের মূল্যায়ন করবে না তাদের থানায় থাকার কোনো অধিকার নেই। সেই সাথে থানাকে দালালমুক্ত করতে হবে।’
 
মঙ্গলবার পুলিশ লাইন্স মাঠে রংপুর কমিউনিটি পুলিশিং-এর বিভাগীয় সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।
আইজিপি বলেন, ‘পুলিশের প্রতি মানুষের যে ভীতি তা দূর করতে হবে। পুলিশ ও জনগণের মধ্যে দূরত্ব কমাতে হবে। কারণ জনগণই হচ্ছে দেশের মালিক। আর আমরা জনগণের সেবক। জনগণকে সাথে নিয়ে আমরা দেশের কল্যাণে কাজ করে যাব। এটি হলে মানুষের সঙ্গে পুলিশের সেতু বন্ধন সৃষ্টি হবে। আর এটি সম্ভব কমিউনিটি পুলিশিং এর মাধ্যমে। আমরা সেই পুলিশ বাহিনী তৈরি করতে চাই যাতে জনগণের নিকট জবাবদিহিতা থাকবে।’
তিনি বলেন, ‘বর্তমান পুলিশের বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে মাদক এবং জঙ্গিবাদ দমন করা। জঙ্গিবাদের সাথে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই। মানুষকে হত্যা করে ইসলাম কায়েম এটি ধর্ম নয়। গত জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালের জন্য জামায়াত-শিবির স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা পুড়িয়ে গাড়িতে পেট্রোলবোমা মেরে মানুষ হত্যা করেছে। জনগণকে সাথে নিয়ে আমরা সেসব এবং জঙ্গিবাদ মোকাবেলা করেছি।’
তিনি বলেন, ‘দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। আর উন্নয়নের পূর্বশর্ত হলো আইন শৃংখলা বজায় রাখা। আইন শৃংখলা নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারলে উন্নয়ন সম্ভব নয়।’ আইজিপি আরো বলেন, ‘দেশ জাতিকে পঙ্গু করে দেয় মাদক। মাদক প্রসার কমা যাচ্ছে না। এটা বন্ধ করা কঠিন। পুলিশের একার পক্ষে তা সম্ভব নয়। এজন্য দেশের জনগণকে সচেতন হতে হবে মাদকের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতে হবে।’তিনি আবারো জোর দিয়ে বলেন, ‘রংপুর জাপানি নাগরিক হত্যা মামলায় আসামিদের গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। খুব দ্রুত এ মামলার চাজশিট দেওয়া হবে।’ আইজিপি একেএম শহীদুল হক বলেন, ‘২০০৭ সালে কমিউনিটি পুলিশিং গঠন করা হয়। এরপর পুলিশ সদস্যরা কমিউনিটি পুলিশিং-এর সদস্যদের সাথে নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।’
 তিনি কমিউনিটি পুলিশিং-এর কমিটিতে খারাপ লোকদের না রাখার আহ্বান জানান।
রংপুর রেঞ্চের ডিআইজি হুমায়ুন কবিরের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বিভাগীয় কমিশনার দিলোয়ার বখত, রংপুর জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. একেএম নুর-উন-নবী, জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ার, পুলিশ সুপার আবদুর রাজ্জাক, কমিউনিটি পুলিশিং বিভাগীয় আহ্বায়ক আব্দুস ছালাম, সদস্য সচিব সুশান্ত ভৌমিক, রংপুর মহানগর কমিউনিটি পুলিশিং-এর সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা সদরুল আলম দুলু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি মণ্ডল, জেলা শিল্পকলা একাডেমিক সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুর রহমান টুটুলসহ ৮ জেলার কমিউনিটি পুলিশিং ইউনিটের নেতারা।
পরে আইজিপি একেএম শহীদুল হক রংপুরের পুরনো শহর মাহিগঞ্জ পুলিশ ফাঁড়ির নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন। ফাঁড়ির ইনচার্জ আফাজুল ইসলাম তাকে স্বাগত জানান। এসময় পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আইজিপির সাথে ছিলেন।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.