হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

জাতীয়প্রচ্ছদ

চাঁদ দেখা নিয়ে ‘বিভ্রান্তি’ কাটাতে বসছে জাতীয় কমিটি

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::  শাবান মাসের চাঁদ দেখা নিয়ে ‘জনমনে বিভ্রান্তি তৈরি হওয়ায়’ শনিবার সকালে জরুরি সভায় বসছে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি শেখ মো. আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় ওই সভায় যারা গত ৬ এপ্রিল চাঁদ দেখেছেন বলে দাবি করেছেন তাদেরও থাকতে বলা হয়েছে।

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মুকাররম সভাকক্ষে এই সভা হবে বলে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

গত শনিবার সন্ধ্যার পর সেখানেই জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভায় আগামী ২১ এপ্রিল রাতে শবে বরাত পালনের সিদ্ধান্ত হয়।

সভাশেষে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেছিলেন, এদিন সারা দেশের কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা না যায়নি। তাই নিয়ম অনুযায়ী ১৪ শাবান রাত অর্থাৎ ২১ এপ্রিল রাতে শবে বরাত পালন করা হবে।

তবে ‘মজলিসু রুইয়াতুল হিলাল’ নামের একটি সংগঠনের নেতারা বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, গত ৬ এপ্রিল শাবানের চাঁদ দেখা গেছে এবং সে বিষয়ে প্রশাসনকে অবহিত করা হলেও সে অনুযায়ী সিদ্ধান্ত হয়নি।

সংগঠনের সভাপতি আল্লামা আবুল বাশার মুহম্মদ রুহুল হাসান বলেন, “এবার ২৯ রজবুল হারাম শরীফ বাদ মাগরিব দেশের বিভিন্ন স্থানে পবিত্র শাবান মাসের চাঁদ দেখা দেখা গেলেও তারা সেটাকে আমলে না নিয়ে দ্বীনদার মুসলমানগণের বিশ্বাস ভঙ্গ করেছেন এবং এখনো তাদের ভুল সিদ্ধান্তে অটল রয়েছেন। যা সুস্পষ্ট সম্মানিত শরীয়ত বিরোধী সিদ্ধান্ত।”

৬ এপ্রিল খাগড়াছড়িতে চাঁদ দেখার পর অনেকে জেলা প্রশাসককে ফোনে জানিয়েছিলেন বলে দাবি করেন তিনি।

“ডিসি সাহেবকে ফোন করলে ডিসি সাহেব বলেছেন, চাদ দেখার ঘোষণা হয়ে গেছে, চুপ করে যান,” বলেন রুহুল হাসান।

ওই দিন ‘চাঁদ দেখার’ বিষয়টি পর্যালোচনা না করে তড়িঘড়ি করে সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয়েছিল বলে অভিযোগ করেছেন তারা।

শবে বরাতের ‘ভুল’ তারিখ ঘোষণার অভিযোগে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির পদত্যাগ দাবি করেছেন সংগঠনটির নেতারা।

দুপুরে ওই সংবাদ সম্মেলনের পর সন্ধ্যায় সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে পাঠিয়ে শনিবার জরুরি বৈঠক আহ্বানের কথা জানিয়েছে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি।

তাদের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, “ওই দিন সভায় দেশের সব জেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের প্রধান কার্যালয়, দেশের সব বিভাগীয় ও জেলা কার্যালয়, বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের সব কার্যালয় এবং মহাকাশ গবেষণা ও দূর অনুধাবন প্রতিষ্ঠান হতে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে পর্যালোচনা করে সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় যে, বাংলাদেশের আকাশে কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি।”

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.