গলা কেটে মাকে খুন, মাথা নিয়ে পালানোর সময় আটক

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট, ২০১৮ ১০:৩৩ : অপরাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::
গলা কেটে খুন করার পর মায়ের মাথা নিয়ে পালাতে গিয়ে ধরা পড়েছেন এক ব্যক্তি। তাকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে প্রতিবেশীরা।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, আজ রোববার সকালে ভারতের ঝাড়খণ্ডের দুমকা জেলায় ঘটনাটি ঘটেছে। ওই ব্যক্তির নাম চম্পাই মারান্ডি (৩৫)।
খবরে বলা হয়, মদ্যপ অবস্থায় বাড়িতে আসার পর বৃদ্ধ মাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে চম্পাই মারান্ডি। প্রতিবেশীরা এ ঘটনার টের পেয়ে তাকে আটক করার পর স্থানীয় রামগড় পুলিশের হাতে তুলে দেয়।
রামগড় থানার পুলিশ জানিয়েছে, চম্পাই নিয়মিত মদ্যপান করতেন। রোববার সকালে মদ পান করে বাড়ি ফেরেন তিনি। এ সময় তার সঙ্গে একটি ধারালো অস্ত্র ছিল। বাড়ির দরজায় নিজের মাকে বসে থাকতে দেখে প্রচণ্ড রাগ হয় তার। এ কারণে সঙ্গে থাকা অস্ত্র দিয়ে তার গলায় আঘাত করে চম্পাই। এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান তার মা।
পরে চম্পাইয়ের চিৎকার চেচামেচি শুনে প্রতিবেশীরা তার ঘরের দিকে এগিয়ে আসেন। তারা ঘরের সামনে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই নারীকে দেখতে পান। এ সময় তার মাথা দেহ থেকে আলাদা অবস্থায় ছিল।
প্রতিবেশীরা খুনের বিষয়টি জেনে গেছে বুঝতে পেরে মায়ের কাটা মাথা নিয়ে পালিয়ে যেতে চান চাম্পাই। কিন্তু স্থানীয়রা তাকে আটক করে থানায় খবর দেয়।


সর্বশেষ সংবাদ