টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

খালেদা জিয়া যেকোন সময় গ্রেফতার !

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ২০ অক্টোবর, ২০১৩
  • ১৩৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বিএনপি চেয়ারপারসন ও জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা খালেদা জিয়া ফের গ্রেফতার হতে পারেন। আগামী ২৫ অক্টোবরের ‘সম্ভাব্য নাশকতা’ ঠেকাতে বা বিএনপির নেতৃত্বাধীন ১৮ দলের জোটের আন্দোলন ‘দুর্বল’ করতে সরকার তাকে গ্রেফতার করতে পারে। ২৫ অক্টোবর থেকে ‘সরকার পতনে’ লাগাতার যেকোনো কঠিন কর্মসূচির ঘোষণা, হুমকি দিচ্ছে বিএনপি।

সরকারের পক্ষ থেকে বিরোধী দলের হুমকির প্রেক্ষিতে বলা হচ্ছে, নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি ঠেকাতে সরকার আরো কঠোর হবে। এক্ষেত্রে সম্ভাব্য আন্দোলন ও নৈরাজ্য সামাল দিতে গ্রেফতার করা হতে পারে খালেদা জিয়াকে। এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে ফেসবুকসহ সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যমগুলোতে। গুজব হলেও বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে শুরু করে তৃণমূলের অনেক নেতা খালেদা জিয়া গ্রেফতার হতে পারেন, এটা বিশ্বাস করছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহিউদ্দিন খান আলমগীর, আইন প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলামসহ সরকারের শীর্ষ পযায় থেকে একাধিকবার বলা হয়েছে, জনগণের শান্তি নষ্টকারীদের প্রতিহত করতে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। মানুষের জানমালের নিরাপত্তার স্বার্থে যেকোনো সংঘাত-সহিংসতা কঠোরভাবে দমন করবে সরকার। এক্ষেত্রে বাস্তবতার নিরিখে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর সবশেষ গত ৮ অক্টোবর ফেনীর ফুলগাজী থানার নবনির্মিত ভবন উদ্বোধনকালে বলেছিলেন, ‘২৫ অক্টোবরের পর আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা করা হলে সর্বাত্মক শক্তি দিয়ে দুর্বৃত্তদের দমন করা হবে।’ এছাড়া ২৫ অক্টোবরের পর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির যেন অবনতি না হয়, সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে কঠোর ও বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এসবের প্রেক্ষিতে খালেদা জিয়া গ্রেফতার হতে পারেন, এমন গুজব ছড়িয়ে পড়েছে।

গুজবের সত্যতা জানতে যোগাযোগ করা হয় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের তিন নেতার সঙ্গে। তারা অভিযোগ করেন, ‘ছাত্রশিবির এরকম গুজব ছড়াচ্ছে। যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি তৈরি করতে তারা একের পর এক নানা ষড়যন্ত্র করছে। আর খালেদা জিয়া গ্রেফতার হতে পারেন, এমন গুজব ছড়িয়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের উস্কানি দিয়ে রাস্তায় নামাতে চাচ্ছে শিবির।’ আওয়ামী লীগের ওই তিন নেতার আশঙ্কা, ২৪ অক্টোবরের পর বিএনপি নয়, জামায়াতে ইসলামীই সহিংসতা চালাতে পারে। সে বিষয়ে নজর রাখার ব্যাপারে দল সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

২৫ অক্টোবর বিরোধী দলের আন্দোলন আওয়ামী লীগ কিভাবে ঠেকাবে, জানতে চাইলে তারা বলেন, ‘ঢাকায় সমাবেশের মাধ্যমে রাজপথ দখল ও পর্যায়ক্রমে গোটা দেশে সাংগঠনিক তৎপরতা জোরদার করার পরিকল্পনা নিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলের বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীদেরকে ২৫ অক্টোবর থেকে ঢাকার বাইরে পাড়া-মহল্লায় সচেতন থাকার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। ২৪ অক্টোবরের পর থেকে আওয়ামী লীগ ও এর অঙ্গ-সহযোগী, ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনগুলোর নিয়মিত কর্মসূচি থাকবে। বিরোধী দলের আন্দোলন ঠেকাতে এসব সংগঠনকে বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। এ সময় রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউ এলাকায় আওয়ামী লীগের পাশাপাশি অবস্থান করবে স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও শ্রমিক লীগের মতো সংগঠনগুলো।’

তবে ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ২৫ অক্টোবরের সমাবেশ সম্পর্কে বলেন, ‘আমরা বিএনপিকে প্রতিদ্বন্দ্বীই মনে করি না। কাউকে প্রতিহত করতে ওই সমাবেশ ডাকা হয়নি। দলের সাফল্য ও নির্বাচনী প্রচারের অংশ হিসেবে এই সমাবেশ ডাকা হয়েছে। ওই দিন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগ রাজপথ দখল করে রাখবে।’

সূত্র: প্রিয় দেশ

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT