টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

কক্সবাজার ও ঈদগাঁও থেকে পাঠানো সব খবর… পড়তে কিক করুন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৭৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

ঈদগাঁওতে পুলিশের অভিযানে প্রতারক বৈদ্যসহ গ্রেফতার-৩ এস.এম.তারেক, ঈদগাঁও::::কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে তদন্ত কেন্দ্রের পুলিশ অভিযান চালিয়ে ইসলামপুর থেকে এক বৈদ্য সহ ৩ ব্যক্তিকে আটক করেছে। ২১ সেপ্টেম্বর গভীর রাতে এ অভিযান পরিচালিত হয়। জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে চিকিৎসার নামে অপচিকিৎসা দিচ্ছে প্রতারণার মাধ্যমে এলাকার লোকজনের নিকট হতে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে  ইসলামপুরের জেলে পাড়ায় জনৈক রোগীর চিকিৎসা দেয়ার সময় খানঘোনা গ্রামের মৃত মির্জা আলীর পুত্র ছিদ্দিক আহমদ (৬৫) বৈদ্যকে পুলিশ আটক করে। এছাড়া পৃথক অভিযানে বিভিন্ন মামলার পলাতক আসামী ঈদগাঁও ভোমরিয়াঘোনার মৃত কালুর পুত্র আবদুর রহমান (২৬) ও  ফরিদুল আলমের পুত্র জয়নাল আবেদীনকেও  গ্রেফতার কওে পুলিশ। ২২ সেপ্টেম্বর’১৩ দালাল বদিউল আলমের হাত ধরে

মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে গিয়ে ঈদগাঁও চাঁন্দেরঘোনার ৬ যুবক ৪ মাস ধরে নিখোঁজ ঃ পরিবারে আহাজারী

এস.এম.তারেক, ঈদগাঁও, ককসবাজার সদরের ঈদগাঁও ইউনিয়নের চাঁদের ঘোনার ৬ যুবক স্থানীয় এক দালালের হাত ধরে মালয়েশিয়া যাওয়ার উদ্দেশ্যে বাড়ী থেকে বের হওয়ার পর গত ৪ মাস ধরে নিখোঁজ রয়েছে। তারা বেঁচে আছে কি মরে গেছে তাও বলতে পারছেন না আত্মীয় পরিজনেরা। ফলে তাদের পরিবারে চলছে প্রিয়জন হারানোর আহাজারী। ঘরে ঘরে পড়েছে কান্নার রোল। জানা যায়, মালয়েশিয়ায় গিয়ে বিপুল অর্থ বিত্তের মালিক বনে যাওয়ার লোভ দেখিয়ে ঈদগাঁও ইউনিয়নের মেহেরঘোনার আমির হোসেনের পুত্র মালয়েশিয়ার দালাল বদিউল আলম  পার্শ্ববর্তী চাঁদেরঘোনা গ্রামের ৬ যুবক আমির হোসেনের পুত্র আবুল কালাম,  মৃত মোক্তার আহমদের পুত্র মিজানুর রহমান,  মৃত মোস্তফা কামালের পুত্র ছলিম উল্লাহ, পাটুয়ারীর পুত্র মিজানুর রহমান, শাহ আলমের পুত্র নুরুল হুদা ও নুরুল আলমের পুত্র মিজানুর রহমানকে ৪ মাস পূর্বে মালয়েশিয়া পাঠানোর উদ্দেশ্যে টেকনাফ নিয়ে যায়। সেখানে মূল দালাল হামিদের মাধ্যমে  সেন্ট মার্টিন দ্বীপের অদূরে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রলারে তোলার জন্য টেকনাফ থেকে ইঞ্জিন চালিত বোটে উঠিয়ে দেয়। তাদের পরিবার সূত্রে জানা যায়, দালাল বদিউল আলম এর আগে প্রত্যেকের কাছ থেকে অগ্রীম হিসেবে ৩০-৪০ হাজার টাকা করে হাতিয়ে নেয় বাকী টাকা মালয়েশিয়ায় পৌঁছে পরিশোধের অঙ্গীকারে। পরিবার গুলোর অভিযোগ, এর পর থেকে তাদের আর কোন খোঁজ খবর নেই। তারা কোথায় আছে, কি করছে, বেঁচে আছে কি মরে গেছে তাও জানেন না। এদিকে তাদের কোন তথ্য না পেয়ে পিতা-মাতা, ভাই বোন ও স্ত্রী সন্তানদের মাঝে চলছে প্রিয়জন হারানোর আহাজারী। পড়েছে ঘরে ঘরে কান্নার রোল। অভাবের সংসারে একটু আর্থিক স্বচ্ছলতা ফিরিয়ে আনার আশায় স্বপ্নের দেশ মালয়েশিয়া যাওয়ার উদ্দেশে আত্মীয় পরিজন ছেড়ে গিয়ে তারা নিরুদ্দেশ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ভূক্তভোগীদের দাবী, স্থানীয় দালাল বদিউল আলমকে আইনের আওতায় নিয়ে গিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রকৃত তথ্য পাওয়া যাবে। খবর পাওয়া যাবে নিরুদ্দেশ হয়ে যাওয়া তাদের প্রিয়জনদের। সূত্রে প্রকাশ, টেকনাফের দালাল হামিদের রয়েছে ককসবাজার জেলাব্যাপী মাঠ পর্যায়ের দালাল চক্র। তারা এলাকা ভিত্তিক ভাগ হয়ে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে মালয়েশিয়া পাঠানোর নামে সহজ সরল প্রকৃতির দিন মজুর ও বেকার শ্রেণির যুবকদের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। গত ২০ সেপ্টেম্বর রাতে এই দালাল চক্রের দু’সদস্য সদরের ইসলামপুর ইউনিয়নের খানঘোনা গ্রামের হাজী মোজাহের আহমদের পুত্র হাবিবুর রহমান ও একই এলাকার আবুশামার পুত্র আবুল বশরকে জনতার সহযোগিতায় ডুলাহাজারা বাজার থেকে ১টি ব্যাংক চেক ও ৩টি পাসপোর্ট সহ চকরিয়া থানা পুলিশ গ্রেফতার করে।

 

বাইশারীতে  দুবৃর্ত্তরা চাঁদা না পেয়ে বাবার বাগানের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করছে, জিম্মি বাগান মালিকেরা এস.এম.তারেক, ঈদগাঁও,পার্বত্য জেলা বান্দরবানের বাইশারীতে  রাবার বাগান মালিকেরা ওই এলাকার সন্ত্রাসী ও দুবৃর্ত্তদের কাছে এক প্রকার জিম্মি হয়ে পড়েছে। দীঘদিন ধরে তারা এ সমস্যায় নিপতিত বলে বাগান মালিকেরা জানান। এজি লুৎফুর কবির রাবার ষ্টেটের সত্বাধিকারী কবির আহমদ জানান, এলাকার কিছু চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও দুর্বৃত্ত অজ্ঞাতনামা টেলিফোন থেকে চাঁদা দাবী করে বসে এবং চাঁদা না দিলে তারা রাতের আঁধারে বাগানে প্রবেশ করে গোঁড়া থেকে গাছ কেটে দেয় নয়তো দা বা ছুরি দিয়ে বাকল তুলে ফেলে গাছের ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। অপর বাগান মালিক মনজুরুল করিম চৌধুরীও সন্ত্রাসীদের তান্ডবের কথা স্বীকার করেন।  এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ পেতে তারা বাইশারীতে বিজিবির একটি স্থায়ী ক্যাম্প স্থাপনের দাবী জানিয়েছেন। বাইশারী মৌজাতে প্রায় ১০ হাজার একর রাবারের আবাদ করা হয়েছে এবং প্লট মালিক রয়েছেন প্রায় ৪০০ জন। মালিক সুত্র জানায়, একটি চারা গাছ বড় হয়ে কষ দিতে প্রায় ৫ বছর পর্যন্ত সময় লাগে এবং এ ৫ বছরে গাছ প্রতি ব্যয় হয় প্রায় ১২ হাজার টাকা করে। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যাপক অবদান রেখে চলা তরল এ সাদা সোনার চাষীরা সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের হাত থেকে রক্ষা পেতে সরকারের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। ২২ সেপ্টেম্বর’১৩  ড্রেস কোডের অজুহাতে ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে ধর্মীয় অধিকার হরণ, সহ্য করা হবে  না—–জেলা ইশা ছাত্র আন্দোলন ।

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন কক্সবাজার জেলা শাখার সভাপতি এইচ.এম.শফিউল আলম, সহ-সভাপতি মুহাম্মদ রাসেল ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ সাজ্জাদ হোসাইন এক যৌথ বিবৃতিতে বলেছেন, ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ে ড্রেস কোডের অজুহাতে ধর্মীয় অধিকার হরণ করা হয়েছে। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন প্রাইভেট শিা প্রতিষ্ঠান গুলোতে পাশ্চাত্য সংস্কৃতির চর্চার ফলে আজ পুঁিজপতিদের ঘরে ঘরে ঐশীর মতো তরুণীদের জন্ম হচ্ছে। যার ফলে যুব সমাজের নৈতিক অবয় আজ চরম পর্যায়ে পৌছেছে। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে সংশ্লিষ্ট কতৃপকে ধর্মীয় স্বাধীনতায় হস্তপে বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে আহবান জানান। অন্যথায় ছাত্র জনতাকে নিয়ে ধমীয় অধিকার রায় দূর্বার গণআন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সাংবাদিক ইউনিয়নের ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে অভিনন্দন জানিয়েছেন সিএসএস নেতৃবৃন্দ সংবাদ বিজ্ঞপ্তি জেলার দু’সাংবাদিক ইউনিয়নের ব্যতিক্রমী উদ্যোগকে অভিনন্দন জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন কক্সবাজার সাংবাদিক সংসদ (সিএসএস) এর নেতৃবৃন্দ। অপসাংবাদিকতা প্রতিরোধের নানা উপায় এবং সাংবাদিকদের দক্ষতা বৃদ্ধিতে প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা গ্রহনের যে সময়োপযোগি প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন তা পেশাদার সাংবাদিকদের অনন্য সহায়ক ভূমিকা রাখবে বলে সিএসএস বিশ্বাস করে। সিএসএস’র সভাপতি ও দৈনিক আপনকন্ঠের বার্তা সম্পাদক আজাদ মনসুর, সংগঠনের সাধারণ এসএ টিভির জেলা প্রতিনিধি আহসান সুমন স্বাক্ষরিত ইন্টারনেটে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে উক্ত বিবৃতি প্রদান করা হয়। সংগঠনের অন্যান্যের মধ্যে আপনকন্ঠের যুগ্ম বার্তা সম্পাদক সিনিয়র সহ-সভাপতি শ.ম গফুর, সহ-সভাপতি দৈনিক কক্সাবাজারে স্টাফ রিপোর্টার সোয়েব সাঈদ, সহ-সভাপতি দৈনিক বাঁকখালীর সাবেক বিভাগীয় প্রধান ছড়াকার জহির ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক দৈনিক কক্সবাজারের স্টাফ রিপোর্টার ওমর ফারুক হিরু, অর্থ সম্পাদক আপনকন্ঠের যুগ্ম বার্তা মোহাম্মদ তুহিন, সাংগঠনিক সম্পাদক দৈনিক সাগর দেশের সিনিয়র স্টাফ রিপোর্টার এইচ.এম. নজরুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক দৈনিক সমুদ্রবার্তার স্টাফ রিপোর্টার মোহাম্মদ ছৈয়দ নুর, দপ্তর সম্পাদক দৈনিক আমাদের কক্সবাজারের যুগ্ম বার্তা মোহাম্মদ নোবেল, সিনিয়র নির্বাহী সদস্য দৈনিক সাগরদেশের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক মোস্তফা সরওয়ার, নির্বাহী সদস্য একাত্তোর টিভির কক্সবাজার জেলা প্রতিনিধি কামরুল ইসলাম, মিন্টু, চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের সাবেক বার্তা কক্ষ সম্পাদক তানবিরুল ইসলাম সোহেল, দৈনিক দৈনন্দিনের স্টাফ রিপোর্টর আরফাতুল মজিদ, দৈনিক কক্সবাজার বাণীর স্টাফ রিপোর্টার নুরুল আমিন হেলালী, সদস্য দৈনিক হিমছড়ির স্টাফ রিপোর্টার শাহেদ ইমরান মিজান, চিত্রগ্রাহক মফিজুল ইসলাম মফি, কক্সবাজার টাইমস্ এর বার্তা সম্পাদক এ.কে রাসেল চৌধুরী, আপনকন্ঠের স্টাফ রিপোর্টার আবদুল আলিম, আজকের কক্সবাজারের ফিরোজ উদ্দিন খোকা, হিমছড়ির বাবুল মিয়া মাহমুদ। ======================================================

ঈদগাঁওতে সাত শতাধিক বনজ ও ফলজ গাছে চারা বিতরণ প্রেস বিজ্ঞপ্তি ২২-০৯-১৩ইং সদর উপজেলার ঈদগাঁওতে সাত শতাধিক বনজ ও ফলজ গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছে। জানা যায়, কক্সবাজার সদর- রামু আসনের সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজলের পক্ষ থেকে ঈদগাঁও ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডে বিভিন্ন প্রজাতের গাছের চারা প্রদান করা হয়। প্রদানকৃত সাত শতাধিক চারার মধ্যে পাঁচ শতাধিক চারা দক্ষিণ মাইজ পাড়া জামে মসজিদ ও দু’শতাধিক চারা এলাকাবাসীর মাঝে বিতরণ করা হয়। এদিকে ২২ সেপ্টেম্বর সকালে চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন- ঈদগাঁও বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফি, বিশেষ অতিথি ছিলেন- উপজেলা যুবদল সহ-সভাপতি মামুন সিরাজুল মজিদ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ৩নং ওয়ার্ড ছাত্রদল সভাপতি এহেসান জোহান, ফরিদুল আলম, মোহাম্মদ আলম সহ আরো অনেকে।

 

 

ছবি আছে ঈদগাঁওতে সাংসদ কাজলের পক্ষে ৭শ চারা বিতরণ

মোঃ রেজাউল করিম, ঈদগাঁও,কক্সবাজার। মোবাইল- ০১৫৫৮-৪৩৪২২৮, ০১৮৩৫-৪১০১২৫। কক্সবাজার-রামু আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য লুৎফুর রহমান কাজলের পক্ষে ঈদগাঁওয়ে গাছের চারা বিতরণ করা হয়েছে। ২২ সেপ্টেম্বর দুপুরে ঈদগাঁও রেঞ্জ অফিস প্রাঙ্গণ থেকে বিভিন্ন জামে মসজিদ ও এলাকাবাসীদের মধ্যে বিবিধ প্রজাতির প্রায় ৭’শতাধিক চারা বিতরণ সম্পন্ন হয়। বিতরণকালে রেঞ্জ ও বিট কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পাশাপাশি দক্ষিণ মাইজ পাড়া জামে মসজিদ পরিচালনা কমিটির সেক্রেটারী এহছান জোহান, মোয়াজ্জিন মাও. মোহাম্মদ আলম, হিসাব রক্ষক মাও. ফরিদুল আলমসহ এলাকার মান্যগণ্য ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন। চারা বিতরণে সহযোগিতা করেন রেঞ্জ অফিস কর্তৃপক্ষ। ঈদগাঁও দণি মাইজপাড়া কেন্দ্রীয় মসজিদ ও মাদ্রাসায় ৭ শতাধিক চারা বিতরণ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান আযাদ, ঈদগাঁও অফিস। তাং-২২-০৯-২০১৩ইং বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদীদল তথা কক্সবাজার সদর রামুর আসনের মাননীয় সাংসদ লূৎফুর রহমান কাজল জলাবায়ু বিরোপ পরিবর্তনে মোকাবেলায় ব্যাপকহারে গোটা কক্সবাজারে চারা বিতরণ করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় ঈদগাঁও ইউনিয়নের দণি মাইজপাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে ২২ সেপ্টেম্বর ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে চারা বিতরণ সম্পন্ন হয়। চারা বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ঈদগাঁও ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ শফি, ঈদগাঁও সাংগঠনিক উপজেরা যুবদলের সিনিয়র সহসভাপতি মানুন সিরাজুল মজিদ, মসজিদ পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক এহেছান জুহান, অর্থ সম্পাদক মৌলভী ফরিদুল আলম, মসজিদের ঈমান মাওলানা মোহাম্মদ আলম সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। উল্লেখ্য, জামে মসজিদ ও নূরানী তালিমুল কুরআন মাদ্রাসায় ৫ শতাধিক চারা ও এলাকায় দু’শতাধিক চারা বিতরণ করা হয়। ভারুয়াখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল সম্পন্ন

প্রেস বিজ্ঞপ্তিঃ বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার সদর উপজেলার আওতাধীন ভারুয়াখালী ইউনিয়ন শাখার দ্বিবার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিলর অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২১ শে সেপ্টেম্বর শনিবার বিকাল ৩ টায় ভারুয়াখালী বাজারস্থ স্টেশন প্রাঙ্গনে অত্র ইউনিয়নের আহ্বায়ক মিজান উদ্দীনের সভাপত্তিত্বে যুগ্ন আহ্বায়ক তৌহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সম্মেলন উদ্ধোধন করেন, কক্সবাজার সদর উপজেলার ছাত্রলীগের বিল্পবী আহ্বায়ক আবদুল মালেক। সম্মানিত অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার পৌর আওয়ামীগের সভাপতি মুজিবুর রহমান। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সংগ্রামী সভাপতি আলী আহমদ। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্তিত ছিলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক জাহাঙ্গীর আলম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্তিত ছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কক্সবাজার জেলা শাখার সাধারন সম্পাদক আবুতাহের আজাদ, বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগের জেলা সভাপতি তৈয়ব উল্লাহ মাতাব্বর, ডা: আবুল কাসেম ভূঁইয়া, ভারুয়াখালী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি কামাল উদ্দীন, সাধারন সম্পাদক মঈনুদ্দিন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সদর উপজেলার যুবলীগের সাধারন সম্পাদক তাজউদ্দীন সিকদার তাজমহল, খুরুশকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জসিম উদ্দীন, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মোঃ রিয়াদ, শহিদুল ইসলাম ভুট্টু, মোঃ শাহিন, জেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন সাধারন সম্পাদক জালাল উদ্দীন মিটু, জাহেদুল ইসলাম রুবেল, ইসমাইল সাজ্জাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়াহিদুর রহমান রুবেল, এম. এ মোনাফ সিকদার। এ সময় উপস্তিত ছিলেন কক্সবাজার সরকারী কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আবদুল মজিদ, গ্রন্তনা ও প্রকাশনা সম্পাদক আলিফউজ্জমান শুভ, উপ আপ্যায়ন সম্পাদক মোবারক হোসেন বারেক, উপ স্কুল বিষয়ক সম্পাদক কলিম উল্লাহ, জেলা ছাত্রলীগ নেতা পাবেল, আইন কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক পলাশ শর্মা, খুরুশকুল ইউনিয়ন ছাত্রলীগের আহ্বায়ক কাজী তামজিদ রিজুয়ান, যুগ্ন আহ্বায়ক ফয়সাল মাহমুদ, পি.এমখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাহেদুল ইসলাম, সহ-সভাপতি হাফিজুর রহমান লাভলু, ঝিলংজা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের যুগ্ন আহ্বায়ক কফিল উদ্দীন, পলি টেকনিকেল ছাত্রলীগের সভাপতি সাজ্জাদ হোসেন চৌধুরী, ছাত্র নেতা এহেছানুল হক মিলন, শওকত বেলাল, ছাদেক উল্লাহ সিকদার, মোঃ আশিক, জিয়াউল হক জিয়া, আকাশ, রাজিবুল হক রাজু, রিয়াদ প্রমুখ।

সংবাদ প্রেরক

(তৌহিদুল ইসলাম) মোবাইল: ০১৮২৯ ৩৫৫ ৮৭০ যুগ্ন আহ্বায়ক, ভারুয়াখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ। কক্সবাজারের সকল মুক্তিযোদ্ধা ভাইয়েরা বিভক্তিকে অস্বীকার করুন, ঐক্যের পথে ফিরে আসুন

অদ্য ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৩ইং ঐক্যবদ্ধ মুক্তিযোদ্ধাদের এক সভা রাত ৮ ঘটিকার সময় হোটেল পালংকির সম্মেলন কে ক্যাপ্টেন (অবঃ) আবদুস সোবহান সাহেবের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যের পথে বিভিন্ন অগ্রগতি সম্পর্কে আলোচনা হয়। বিগত ১৮ই সেপ্টেম্বর ২০১৩ইং সকল স্থানীয় দৈনিকে সকল মুক্তিযোদ্ধা ভাইদের ঐক্যের পথে উদাত্ত আহবান জানিয়েছিলাম। মহান আল্লাহর ইচ্ছায় মুক্তিযোদ্ধা ভাইদের মাঝে এই আহবান ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। সকল মুক্তিযোদ্ধাদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার অপরিহার্যতা সম্পর্কে সবাই জরুরী ভাবে চিন্তা করতে শুরু করেছেন। কিন্তু অতীব দুঃখের বিষয় সেই পুরনো স্বার্থন্বেষী মহল যাদের চক্রান্তের শিকার হয়ে ৩৩৩জন গেজেটভূক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ঘৃণ্য দলাদলি সৃষ্টি হয়েছিল এবং দেড় যুগেরও বেশী সময় মুক্তিযোদ্ধাদের পরস্পরের মাঝে শত্র“তা সৃষ্টি করে রেখেছিল, তাদের সেই পুরনো কৌশল পুনরায় প্রয়োগ করে অনেক মুক্তিযোদ্ধা ভাইদের বিপথগামী করার চেষ্টায় তৎপর হয়ে উঠেছে। গেজেটভূক্ত ৩৩৩ জন মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে কোন প্রকার পার্থক্য সৃষ্টিকারী সকল মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ঐক্যের পথে বাধা সৃষ্টি করছে। আসুন ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে একটি মাত্র কমিটি তৈরী করে মুক্তিযোদ্ধাদের সার্বিক কল্যাণের পথে অবদান রাখি। সভায় মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন-ডাঃ মাহবুবউল আলম, মোহাম্মদ আলী, এস. এম. কামাল উদ্দিন, বাবু রনজিত কুমার শীল, নুরুল হক বীর প্রতীক, সুবেদার সোলতান আহম্মদ, আবু আহম্মদ, মনসুরউল হক, আবুল কাশেম, সিরাজুল হক রেজা, মোজাফ্ফর আহমদ, হাবিলদার আবুল হাশেম, আবদুর রহিম কন্ট্রাকটার, এ.টি.এম. আবদুল হাই, সুবেদার এ.বি.ছিদ্দিক, ফরিদুল আলম, আবদুল ওয়ারেছ, আবদুল কাদের, জয়নাল আবেদীন, নজির আহম্মদ, মফিজুর রহমান, শেখ মোঃ আবদুল্লাহ, আবু তাহের চৌধুরী, আল-মামুন শামশুল হুদা, সিরাজুল ইসলাম (মধু), গোলাম মওলা, গোলাম নাজের, রুহুল আমিন মেম্বার, রমেশ বড়–য়া প্রমুখ।

সংবাদ প্রেরক মুক্তিযোদ্ধাদের বৃহত্তর ঐক্যের পে

(ডাঃ মোঃ মাহবুবউল আলম) যুদ্ধাকালিন কমান্ডার গেলি বেন্ড কঈ-১ (কর্ণফুলি কন্টিনজেন্ট-১) চট্টগ্রাম শহর গেরিলা যুদ্ধ সমন্বয়কারী-চট্টগ্রাম শহর-১৯৭১। মুক্তিযোদ্ধাত্তর কমান্ডার, কোতয়ালী থানা, চট্টগ্রাম-১৯৭১।

পোকখালী উপকূল দিয়ে এবার সমুদ্রযাত্রা করল ২’শ  মালয়েশিয়াগামী

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ২২-০৯-২০১৩ ইং। কক্সবাজার সদরের পোকখালী উপকূল দিয়ে এবার মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে পাড়ি জমিয়েছে ২ শতাধিক মালয়েশিয়াগামী। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে পোকখালী ইউনিয়নস্থ ফরাজীঘোনা সংলগ্ন বেড়ীবাঁধের বাইরে সাগরের চর এলাকায় নোঙ্গর করা ট্রলারে উঠে এরা গভীর সাগরের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়। আশপাশের কয়েকটি চিংড়ি ঘেরের বিভিন্ন পয়েন্টে রাত্রিকালীন প্রহরায় নিয়োজিত কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, রাত ১২ টার কিছু পরে ইসলামপুরের দিক থেকে আসা শতাধিক লোক বোঝাই একটি বোট উক্ত স্থানে নোঙ্গর করে। এর কিছুক্ষন পরেই  কক্সবাজারের দিক থেকে চৌফলদন্ডী সেতু পার হয়ে ২/৩ পিকআপ বোঝাই করে শতাধিক লোক উক্ত স্থানে নামে। এদের প্রত্যেকের হাতে ব্যাগসহ অন্যান্য সরঞ্জাম ছিল। গাড়ি থেকে নেমেই এরা দ্রুতগতিতে একপ্রকার দৌড়ে সমুদ্র উপকূলের দিকে যায় ও আপেক্ষমান বোটে উঠেপড়ে। কিছুক্ষনের মধ্যে বোটটি ষ্টার্ট দিয়ে গভীর সমুদ্রের দিকে চলে যায়। উল্লেখ্য, ইসলামপুর খাঁনঘোনা ভিত্তিক আদম পাচারকারী কুখ্যাত সিন্ডিকেট সম্প্রতি সমুদ্র উপকূলীয় ইউনিয়ন পোকখালী, চৌফলদন্ডী ও ইসলামপুরের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে সমুদ্রপথে মালয়েশিয়ায় লোক পাঠানোর মরণ খেলায় মেতেছে। ২০ সেপ্টেম্বর ডুলহাজারা বাজারে স্থানীয় জনগণ উক্ত সিন্ডিকেটে কয়েকজনকে ঘেরাও করে রাখে ও পরে চকরিয়া থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করে। পুলিশ আসার আাগে সিন্ডিকেট প্রধান গিয়াস উদ্দিন বাবুল সুকৌশলে পালিয়ে যায়।

জালালাবাদ পূর্ব ফরাজী পাড়ার নুরুল ইসলাম আর নেই ॥ দাফন সম্পন্ন

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ২২-০৯-২০১৩ ইং। কক্সবাজার সদরের জালালাবাদ পূর্ব ফরাজী পাড়া নিবাসী প্রবীণ মুরব্বি নুরুল ইসলাম আর নেই। শনিবার দিবাগত রাত ২ টার সময় হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তিনি নিজ বাসভবনে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল্লাহি………….. রাজেউন)। তিনি সাবেক ছাত্র নেতা দুবাই প্রবাসী ফরিদুল আলম ও ফার্মাসিস্ট মনছুর আলমের আপন চাচা। ২২ সেপ্টেম্বর রবিবার সকাল ১০ টায় জালালাবাদ বৃহত্তর খামার পাড়া কেন্দ্রীয় জামে মসজিদ কমপ্লেক্স প্রাঙ্গণে নামাজে জানাযা শেষে সংলগ্ন কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। সর্বস্তরের এলাকাবাসী, আত্মীয়-স্বজন, জনপ্রতিনিধি, ছাত্র-শিক্ষক ও সংবাদকর্মীদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত জানাযায় ইমামতি করেন উক্ত মসজিদের খতিব মাও. শামশুল হক আজিজি। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, দু’পুত্র, চার কন্যা ও নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। নুরুল ইসলামের আকষ্মিক মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT