ওরা ডিবি পুলিশ পরিচয়ে ডাকাতি করত

প্রকাশ: ৫ আগস্ট, ২০১৯ ১০:২৩ : অপরাহ্ণ

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক::

রাজধানীর উত্তরা পূর্ব থানাধীন আব্দু্ল্লাহপুরে ডাকাতির প্রস্তুতিকালে দেশীয় অস্ত্রসহ সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের ৫ জনকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। আটকরা হলেন- মেহেদী হাসান (২৮), সুমন হোসেন (১৯), মো. লিটন (১৯), মো. শাওন (২৫) ও সাগর আহমেদ রবিন (৩৫)।

রোববার (৪ আগস্ট) দিবাগত রাতে র‌্যাব-১ এর একটি দল আব্দুল্লাহপুর এলাকার টঙ্গী ব্রিজের দক্ষিণে মাধু মেম্বার ঘাটের দক্ষিণ পাশ থেকে তাদের আটক করে। র‌্যাব-১ জানায়, সংঘবদ্ধ এ চক্রটি ডিবি পরিচয়ে দীর্ঘদিন ধরে ডাকাতি করে আসছিল।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, গোপন তথ্য ছিল একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দল ডাকাতির উদ্দেশে অবস্থান করছে। ওই খবরে র‌্যাব-১ এর একটি দল সেখানে গেলে পালানোর সময় পাঁচজনকে আটক করা হয়। এ সময় ডিবি পুলিশ লেখা বোর্ড, দুটি ছুরি, দুটি সিগন্যাল লাইট, একটি হকিস্টিক ও দুটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা জানায়, সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সক্রিয় সদস্য তারা। পরস্পর যোগসাজশে ডিবি পরিচয়ে দীর্ঘদিন ধরে রাজধানীর উত্তরা, আব্দুল্লাহপুরসহ আশপাশ এলাকায় অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে মোবাইল, টাকা-পয়সা, স্বর্ণালংকার ও মূল্যবান সামগ্রী ডাকাতি করে আসছিল।

সারওয়ার বিন কাশেম বলেন, সাধারণত প্রাইভেটকার তাদের অন্যতম টার্গেট। এ চক্রের সদস্যরা পূর্বপরিকল্পনা অনুযায়ী বিভিন্ন স্থানে ওঁৎ পেতে থাকে এবং রাস্তায় গাড়ি দেখা মাত্রই সিগন্যাল লাইট দেখিয়ে গাড়ির গতিরোধ করে। পরে নিজেদের ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে গাড়ি থেকে নামতে বলে। এছাড়া চলন্ত গাড়ি থামানোর জন্য রশি ও রোড ব্লকারও ব্যবহার করত তারা। পরে পূর্ব থেকে ওঁৎ পেতে থাকা এ চক্রের অন্য সদস্যরা আরোহীদের ওপর হামলা করে ও অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে মূল্যবান জিনিস ছিনিয়ে নেয়।

আটকদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান তিনি।


সর্বশেষ সংবাদ