এই প্রথমবারের মতো ভাসানচরে রোহিঙ্গাদের একটি দল পাঠানো হল

প্রকাশ: ৩ মে, ২০২০ ৯:০১ : অপরাহ্ণ

এই প্রথমবারের মতো ভাসানচরে পাঠানো হল রোহিঙ্গাদের ছোট্ট একটি দলকে। স্থানীয় দালাল চক্রের সহায়তায় বাংলাদেশে প্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের ছোট্ট এই দলকে কোস্টগার্ডের সহায়তায় সেখানে পাঠানো হয়।

শনিবার (২ মে) রাতে ওই দলটি বাংলাদেশে প্রবেশের সময়ে ধরা পড়লে তাদেরকে ভাসানচরে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। কোস্ট গার্ডের সহায়তায় তাদেরকে ভাসানচরে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা।

ভাসানচর মেঘনা নদী ও বঙ্গোপসাগরের মোহনায় জেগে ওঠা বাংলাদেশের একটি ছোট্ট দ্বীপ। এটি নোয়াখালী জেলার হাতিয়া উপজেলার চর ঈশ্বর ইউনিয়নের অন্তর্গত। মায়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার বাংলাদেশ সরকার ভাসানচরে তাদের জন্য আবাসনের ব্যবস্থা করেছে। তবে জাতিসংঘ বরাবরই বলে আসছে, তাড়াহুড়ো করে একটি দ্বীপে রোহিঙ্গাদের পাঠানো হলে মিয়ানমারের কাছে ভুল বার্তা দেওয়া হবে। তাতে মিয়ানমার এমন বার্তা পেতে পারে যে বাংলাদেশেই রোহিঙ্গাদের জন্য দীর্ঘমেয়াদী ব্যবস্থা হয়ে যাচ্ছে, তাদের ফেরত না নিলেও চলবে।

এদিকে শনিবার রাতে ভাসানচরে কতজনকে পাঠানো হয়েছে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা বলেন, ‘রাতে ৩০ জনের মতো ধরা পড়েছে এবং পরবর্তীতে আরও কয়েকজনকে ধরা হয়েছে।’

গত এপ্রিলে রোহিঙ্গাদের একটি দল মালয়েশিয়া যাওয়ার চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে ফিরে আসে। পরবর্তীতে বাংলাদেশ ৩৯২ জন রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেয়। এরপর বঙ্গোপসাগরে ভাসমান আরেকটি জাহাজে প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গাকে জাতিসংঘ ও অন্যান্য কয়েকটি দেশ আশ্রয় দেওয়ার অনুরোধ করলে সেই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে বাংলাদেশ। এর মধ্যেই রোহিঙ্গাদের এই দলটিকে ভাসানচরে পাঠানো হল।


সর্বশেষ সংবাদ