টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের রোহিঙ্গাদের এনআইডি কেলেঙ্কারি : নির্বাচন কমিশনের পরিচালকের বিরুদ্ধে দুপুরে মামলা, বিকালে দুদক কর্মকর্তা বদলি সড়কের কাজ শেষ হতে না হতেই উঠে যাচ্ছে কার্পেটিং! আপনি বুদ্ধিমান কি না জেনে নিন ৫ লক্ষণে ৫৫ হাজার রোহিঙ্গা বাংলাদেশি ভোটার: নিবন্ধিত রোহিঙ্গাও ভোটার! ইসি পরিচালকসহ ১১ জন আসামি

উগ্র সন্ত্রাসী ও জঙ্গি দমনে নেমেছে বিজিবি’র বিশেষ ব্যাটেলিয়ন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৬৫ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

বাংলানিউজ:Color-9-660x330

উগ্র সন্ত্রাসী, জঙ্গিদের দমনে চট্টগ্রাম অঞ্চলে কাজ শুরু করেছে সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) একটি স্বতন্ত্র ও পূর্ণাঙ্গ ব্যাটেলিয়ন। অত্যাধুনিক সামরিক সরঞ্জামে সমৃদ্ধ এ বিশেষ ব্যাটেলিয়ন বেসামরিক প্রশাসনকেও তাদের বিভিন্ন কার্যক্রমে সহযোগিতা দিচ্ছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ‘রিজিয়ন রিজার্ভ ব্যাটেলিয়ন’ নামে বিশেষ এ ব্যাটেলিয়নের সীমান্তে দায়িত্ব পালনের কোন বাধ্যবাধকতা নেই। তারা জঙ্গী দমনের পাশাপাশি সহিংস রাজনৈতিক কর্মসূচী মোকাবেলা, অবৈধভাবে ভোগ্যপণ্য মজুদসহ আরও বিভিন্ন ধরনের কার্যক্রমে ইতোমধ্যে সম্পৃক্ত হয়েছে।

ম্যাজিস্ট্রেট, বিজিবি ও পুলিশের সমন্বয়ে টাস্কফোর্স গঠন করে নির্দিষ্ট অঞ্চলে যে কোন ধরনের অভিযান চালানোর ক্ষমতা দেয়া হয়েছে এ ব্যাটেলিয়নকে। এক্ষেত্রে অতীতের মতো সবক্ষেত্রে বেসামরিক প্রশাসনের আহ্বানের জন্য এ ব্যাটেলিয়নকে অপেক্ষা করতে হবেনা। তবে বেসামরিক প্রশাসনও তাদের চাহিদা অনুযায়ী এ ব্যাটেলিয়নকে ব্যবহার করতে পারবে।

চট্টগ্রামে রিজিয়ন রিজার্ভ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক হিসেবে কাজ করছেন ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটেলিয়নের লে.কর্ণেল এস এম সালাহউদ্দিন।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, ‘রিজিয়ন রিজার্ভ ব্যাটেলিয়নের আওতায় আমাদের স্বতন্ত্র গোয়েন্দা প্লাটুন আছে। উগ্র সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গীবাদ দমন, চোরাচালান ও মাদক প্রতিরোধ এবং বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তায় আমরা কাজ করছি। যে কোন ধরনের সহিংস কর্মসূচী মোকাবেলার জন্য আমাদের বিশেষ প্লাটুন আছে।’

বিডিআর বিদ্রোহের পর পুর্নগঠিত বিজিবি’র আওতায় দেশের চার অঞ্চলে এ ধরনের চারটি ব্যাটেলিয়ন গড়ে তোলার উদ্যোগ নেয়া হয়। অঞ্চলগুলো হচ্ছে, চট্টগ্রাম, যশোর, রংপুর এবং ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার সরাইল।

সূত্রমতে, চট্টগ্রামে ২৮ বর্ডার গার্ড ব্যাটেলিয়নের অভ্যন্তরীণ ‘রিজিয়ন রিজার্ভ ব্যাটেলিয়ন’ নামে এ বিশেষ ইউনিট গত ফেব্রুয়ারিতে প্রাথমিকভাবে কাজ শুরু করেছে। গত আগস্টে ব্যাটেলিয়নটি পূর্ণাঙ্গভাবে মাঠে নেমেছে। চট্টগ্রাম, তিন পার্বত্য জেলা রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি এবং কক্সবাজার জেলা এ ব্যাটেলিয়নের কার্যক্রমের আওতাভুক্ত।

একইভাবে যশোর, রংপুর এবং ব্রাক্ষ্মণবাড়িয়ার সরাইলেও তিনটি আলাদা ব্যাটেলিয়ন গড়ে তোলার প্রক্রিয়া চলছে বলে সূত্র জানিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, রিজিয়ন রিজার্ভ ব্যাটেলিয়নে প্রায় সাতশ’রও বেশি সদস্য আছে। তাদের জন্য বরাদ্দ আছে অত্যাধুনিক সাজোয়া যান, অস্ত্রশস্ত্রসহ সামরিক সরঞ্জাম, বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট ও হেলমেট, ওয়াকিটকিসহ বিভিন্ন আধুনিক ইক্যুইপমেন্ট।

এ ব্যাটেলিয়নের আওতায় দু’টি বিশেষ প্লাটুন আছে। এর মধ্যে একটি গোয়েন্দা প্লাটুন এবং অপরটি আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ ও সহিংসতা মোকাবেলায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত বিশেষ প্লাটুন।

গোয়েন্দা প্লাটুনে সদস্য আছে ৩৫ জন। তারা বিজিবি’র গোয়েন্দা ইউনিটের চেয়ে আলাদা এবং বিশেষভাবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত।

সহিংসতা মোকাবেলার জন্য যে প্লাটুন গড়ে তোলা হয়েছে সেখানেও আছে ৩৫ জন সদস্য। হরতালসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক কর্মসূচীতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য তারা অত্যাধুনিক সাজোয়া যানসহ বিভিন্ন সরঞ্জাম নিয়ে মাঠে নামতে পারবে।

সূত্র জানায়, সহিংসতার মোকাবেলার জন্য যে প্লাটুন গড়ে তোলা হয়েছে ব্যাটেলিয়নের পূর্ণাঙ্গ কার্যক্রম শুরুর আগেই তাদের মাঠে নামতে হয়েছে। মানবতা বিরোধী অপরাধে যুক্ত দেলাওয়ার হোসাইন সাঈদীর রায়ের পর চট্টগ্রামের বাঁশখালী, সাতকানিয়া ও লোহাগাড়ায় সহিংসতা দমনে কাজ করতে হয়েছে এ প্লাটুনকে।

এছাড়া গত কয়েক মাসে বিএনপি ও জামায়াত যেসব হরতাল কর্মসূচী পালন করেছে তাতে জেলা প্রশাসকের আহ্বানে চট্টগ্রাম জেলা ও নগরীতে এ প্লাটুনের সদস্যদের কাজ করতে হয়েছে।

এছাড়া গত ২৬ আগস্ট, ৩১ আগস্ট ও ৪ সেপ্টেম্বর তিন দফা অভিযান চালিয়ে এ ব্যাটেলিয়নের সদস্যরা প্রায় তিন কেজি এক’শ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করেছে যার আনুমানিক দাম প্রায় তিন কোটি টাকা।

লে.কর্ণেল এস এম সালাহউদ্দিন বাংলানিউজকে জানান, চট্টগ্রামে কোন জঙ্গী সংগঠনের কার্যক্রম আছে কিনা কিংবা নতুন করে কোন জঙ্গী সংগঠন গজিয়ে উঠেছে কিনা এসব বিষয়ে গোয়েন্দা অনুসন্ধান চালাচ্ছেন তারা। এ সংক্রান্ত তথ্য পাবার পর তারা অভিযানে নামবে।

এছাড়া আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে নগরীতে ভোগপণ্যের মজুদ করা হচ্ছে কিনা, কৃত্রিমভাবে দাম বাড়ানো হচ্ছে কিনা সে বিষয়ে গোয়েন্দা নজরদারি করা হচ্ছে বলে লে.কর্ণেল এস এম সালাহউদ্দিন জানান।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT