টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

উখিয়ায় পরিবার কল্যাণ কর্মীর অপরিকল্পিত সংসার!

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২৩ আগস্ট, ২০১৩
  • ১২১ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

এম বশর চৌধুরী, উখিয়া ### উখিয়ার পালংখালী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের পরিবার কল্যাণ কর্মী কুলসুমা আক্তার (২৭) কে যৌতুকের দাবীতে মারধর করে এক কন্যা সন্তান সহ তাড়িয়ে দিয়েছে পাষান্ড স্বামী। সে বালুখালী গ্রামের ছালেহ আহম্মদের মেয়ে। ২০০৯সালের ৮ ডিসেম্বর রুমখা পালং ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার বাংলা প্রভাষক মোঃ গোলাম কবির তাকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে এশা নিলাঞ্জনা ঐশী নামে আড়াই বছরের মেয়ে সন্তান আছে। গত কয়েক মাস পূর্ব হইতে প্রভাষক স্বামী গোলাম কবির পরকিয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে ৫লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী কুলসুমাকে শাররিক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করে আসছিল। এ ঘটনায় অসহায় কুলসুমা পালংখালী ইউপির চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরীর নিকট শালিস দায়ের করলে তার স্বামী নন জুডিসিয়াল ষ্টাম্পে যৌতুক দাবী ও নির্যাতন করবে না বলে অঙ্গীকার করেছিল। এর পরও যৌতুকলোভী স্বামী তাকে নির্যাতন করতে থাকে। সর্ব শেষ গত ৩১ মে বিকাল ৩টায় যৌতুকের দাবীতে কুলসুমাকে মারধর করে তাড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় কুলসুমা বাদী হয়ে উখিয়া থানায় নারী নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। পরে আদালত যৌতুক লোভী স্বামী মোঃ গোলাম কবিরের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানা জারী করলেও সে প্রকাশ্য ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং নিয়মিত মাদ্রসায় আসা যাওয়া করছে। এদিকে পরিবার কল্যাণ কর্মী কুলসুমা আক্তার জানান, মামলা প্রত্যাহার করে নেওয়ার জন্য তার স্বামী তাকে প্রতিনিয়ত হুমকি দিচ্ছে এবং তাকে তালাক নামা প্রদান করেছে। রুমখা পালং ইসলামিয়া আলিম মাদ্রাসার অধ্য মাওলানা ছালেহ আহম্মদ জানান, প্রভাষক গোলাম কবির তার স্ত্রীকে তালাক প্রদান ও স্ত্রীর মামলা দায়েরের কথা শুনেছেন। মামলার দায়েরের কিছু দিন পর্যন্ত প্রভাষক গোলাম কবির মাদ্রাসায় নিয়মিত কাস করেছে। গত কিছু দিন পূর্বে অসুস্থতার কথা বলে মেডিকেল সনদ প্রদান করে মাদ্রাসায় আসা বন্ধ করে দিয়েছে। তিনি বিষয়টি মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির লোকজন সহ উধর্বতন কতৃপরে নিকট অবগত করেছেন। অভিযুক্ত গোলাম কবির জানান, তার স্ত্রী পরকিয়া প্রেমে আসক্ত হয়ে ব্যাপরোয়া চলাফেরা করায় নিয়ম তান্ত্রিক ভাবে তালাক প্রদান করেছেন। তাকে হয়রানী করার জন্য তার স্ত্রী মামলা দায়ের করেছে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT