টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

উখিয়ায় ধর্ষিতা প্রতিবন্ধীর পাশে দাঁড়িয়েছে পুলিশ

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১০৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

K H Pic 29-09-2013কায়সার হামিদ মানিক, উখিয়া প্রতিনিধি॥ কক্সবাজারের উখিয়ায় ধর্ষনের শিকার এক প্রতিবন্ধীকে আইনী সহযোগীতা দিয়ে পাশে দাড়িয়েছেন থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়া। ধর্ষক প্রভাবশালী ও অর্থশালী ব্যক্তি হওয়ার কারণে ধর্ষনের ঘটনা মামলা তোলে নিতে ধর্ষিতার পরিবারকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে মামলা তুলে নিতে বাধ্য করছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের নাসির পাড়া গ্রামের আবদুল হাকিমের প্রতিবন্ধী কন্যা রোজিনা আক্তার (১৮) কে গত ২২/১১/২০১২ ইং তারিখ পশ্চিম হলদিয়ার মৌলভী পাড়া গ্রামের ধনাঢ্য প্রভাবশালী মৃত মোহাম্মদ কালুর ছেলে হাজী মির আহমদ বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে একাধিক বার দৈহিক মেলামেশা করে রোজিনার সাথে। এক পর্যায়ে ১০/০৩/২০১৩ ইং তারিখ প্রতিবন্ধি অন্তঃস্বত্বা হয়ে পড়ে। এ ঘটনায় প্রতিবন্ধী রোজিনা আক্তার কোন উপায়ান্তর না দেখে ধর্ষক হাজী মির আহমদের বিরুদ্ধে থানায় একটি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) ধারায় গত ২৬/০৯/২০১৩ ইং তারিখ মামলা দায়ের করেন। এদিকে ধর্ষক হাজী মির আহমদ প্রভাবশালী হওয়ায় তার অর্থের লোভে বশিভূত হয়ে স্থানীয় কতিপয় রাজনৈতিক প্রতিপকে হাতে নিয়ে রোজিনার পরিবারকে মামলা তুলে নিতে রোজিনার ভাই সিরাজ মিয়ার ছেলে রাশেদুল (১৩) কে দোকানে চাকুরী দেওয়ার নামে কৌশলে ডেকে নিয়ে তাকে জোর পূর্বক বেধে রেখে দোকানের দেড় ল টাকা ও ৪ ভরি স্বর্ণালংকার চুরির মিথ্যা অভিযোগ এনে তাকে থানায় সোপর্দ করে। এ সময় রাশেদুলের পরিবারকে ধর্ষক মির আহমদ প্রস্তাব দেয় যে, রোজিনার ধর্ষন মামলাটি তুলে নিলে রাশেদুলকে এ অপবাদ থেকে নিস্তার দেওয়া হবে। এ ঘটনার বিষয়ে উখিয়া থানার ওসি মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়া উপলব্ধি করতে পেরে রাশেদুলের বিরুদ্ধে আনীত মিথ্যা অভিযোগটি তিনি গ্রহণ করেনি। থানার সুযোগ্য ও দ পুলিশ কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন মিয়া ঘটনাটির ব্যাপারে সিদ্ধান্তে অনড় থাকায় ধর্ষক মির আহমদ প্রতিবন্ধি রোজিনার পরিবারকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে পারেনি। এ চাঞ্চল্যকর ধর্ষন মামলাটির আইও হিসেবেও তিনি দায়িত্ব পালন করেছেন। এদিকে ধর্ষক মির আহমদের ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা রাশেদুলকে আঙ্গুলে সুইচ ঢুকিয়ে দেয় এবং প্রচুর মারধর পূর্বক নির্যাতন করা হয়। পরদিন রাশেদুলের পিতা সিরাজ মিয়া বাদী হয়ে ধর্ষক মির আহমদের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলায় মির আহমদের ছেলে আয়াছ উদ্দিনকে পুলিশ গতকাল শনিবার রাত ১০ টায় পশ্চিম হলদিয়ার মৌলভী পাড়া গ্রামের নিজ বাড়ী থেকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে গতকাল রবিবার জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে বলে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ গিয়াস উদ্দিন মিয়া জানান। এদিকে ধর্ষিতা রোজিনা অন্তসত্বা হয়ে গত ২৭/০৭/২০১৩ ইং একটি সন্তান প্রসব করে। বর্তমানে রোজিনার সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে ন্যায় বিচার চেয়ে থানা ও আদালতের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে। এ ঘটনার বিষয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা গিয়াস উদ্দিন মিয়া বলেন, প্রতিবন্ধি পরিবারের অসহায়ত্বের কথা বিবেচনায় এবং সন্তানের পিতৃ পরিচয় নিয়ে ভবিষ্যতে নানা ধ্র“মজাল সৃষ্টি হতে পারে এ আশংকায় পুলিশ অসহায় পরিবারকে আইনী সহায়তা দিতে তৎপর রয়েছে। ধর্ষক যত বড় শক্তিশালী হউক না কেন তাকে আইনের আওতায় আনা হবে বলেও তিনি জানান।

কায়সার হামিদ মানিক উখিয়া, কক্সবাজার। ০১৮১৩-০১৯৮৩২

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT