টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ঈদগাঁওয়ে বিজয় মেলাকে টার্গেট ঃ জুয়াড়িরা সক্রিয় : আইন শৃঙ্খলা অবনতির আশংকা

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১২
  • ১১৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

 
আনোয়ার হোছাইন, সদর (কক্সবাজার) প্রতিনিধি/
কক্সবাজারের সংঘবদ্ধ জুয়াড়ি চক্র  আসন্ন ডিসেম্বর মাসের বিজয় মেলাকে সামনে রেখে মেলাঙ্গণ সহ তৎ সংলগ্ন এলাকায় জুয়ার আসর বসাতে ফের সক্রিয় হয়ে উঠেছে। যার কারণে জেলা ব্যাপী অতীতের মতো আইন শংঙ্খলা অবনতির আশংকা করছে সচেতন মহল। দেখা যায়, প্রতি বছরের ডিসেম্বর মাস ঘনিয়ে আসলেই দেশ ব্যাপী মহান বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন উপলক্ষ্যে মুক্তি যুদ্ধের ইতিহাস ঐতিহ্য নব প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে বিজয় মেলা সহ বিভিন্ন আচার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে দেশ প্রেমিক জন সাধারণ। তাদের এ মহতি উদ্যোগকে পুজি করে সমাজের ঘৃণ্য শ্রেণীর জুয়াড়ী চক্র অর্থলিপ্সু কথিত লোভী প্রকৃতির নেতাদের অর্থের প্রলোভনে ফেলে উক্ত মেলা কিংবা আচার অনুষ্ঠানে জুয়ার আসর সহ লোক কিংবা প্রশাসনকে ফাঁকি দিয়ে লটারীর নামে ডিজিটাল জুয়ার আসর বসায়। মাইক বেঁধে অল্প টাকায় মোটা অংকের পুরস্কারের কথা গ্রামে গঞ্জে প্রচার করে উঠতি তরুণ-তরুণীদের ফাঁদে ফেলে মেলায় নিয়ে এসে প্রতি মেলা থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে পুরস্কার প্রদানের জন্য গভীর রাত পর্যন্ত নারী-পুরুষদের মেলাঙ্গণে জড়ো করে রাখে। যার কারণে একদিকে জুয়াড়িরা যেমন রাতারাতি কালো টাকার মালিক হয়ে যাচ্ছে। অপরদিকে সহজ-সরল গ্রামের তরুণ সমাজ অপরাধ প্রবনতার দিকে ধাবিত হচ্ছে। যার কারণে ওই সময়ে এলাকায় চুরি ডাকাতি ছিনতাই সহ নানা অপরাধ মুলক কর্মকান্ড আশংকা জনক হারে বেড়ে যায়। বিশেষ করে এলাকার বেকার ও অপরাধী শ্রেণীর যুবকরা জুয়ার খরচ যোগাতে এসব অপরাধ কর্মকান্ড ঘটায়। অন্যদিকে জুয়াড়িরা ও উক্ত আসর নির্বিঘেœ চালাতে এলাকার বাইতে থাকা অপরাধীদের মোটা অংকের টাকার চুক্তিতে এলাকায় ফিরিয়ে এনে জুয়ার আসরের নিরাপত্তায় ব্যবহার করে। জুয়াড়িদের কালো টাকার নেশায় প্রশাসন কিংবা এলাকার জন প্রতিনিধিরা দেখেও না দেখার ভান করে থাকায় জুয়াড়িরা দ্বিগুণ উৎসাহে জেলা ব্যাপী অর্ধ শতাধিক মেলায় কৌশলে জুয়ার আসর বসিয়ে কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। এবারও এর ব্যাতিক্রম হচ্ছে না। সম্প্রতি দক্ষিণ চট্টগ্রামের সংঘবদ্ধ ঈদগাঁওয়ের চিহ্নিত জুয়াড়ি সম্রাটদের আসন্ন বিজয় দিবসকে টার্গেট করে এলাকা কিংবা বাজারে বিভিন্ন দোকান ও গোপন স্থানে জড়ো হয়ে সলাপরামর্শ করতে দেখা যাচ্ছে। ইতিমধ্যে তারা বেশ কটি মেলায় উক্ত আসর বাস্তবায়নে অনেকটা প্রাথমিক কাজ শেষ করছে বলে গোপন সূত্রে প্রকাশ। মহান এ দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত মেলা গুলোতে যদি দেশ বা সমাজের ঘৃণ্য জুয়াড়ি শ্রেণীর লোকদের এ অপরাধ মূলক কাজ করার সুযোগ দেয়া হয় তাহলে মহান এ দিনের মর্যাদা ভুলন্ঠিত হওয়ার পাশাপাশি প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও দেশ রক্ষার সংগ্রামের রক্ত ঝরা দিন গুলি জানার চাইতে অপরাধ মূলক কাজের দিকে ধাবিত হবে বিজ্ঞ মহলের ধারণা। আর তা হলে একদিন দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ত কিভাবে রক্ষা করতে হয় তা তাদের অজানা থাকায় প্রয়োজনের সময়ে তারা সামনে থেকে দেশকে বাঁচাতে নেতৃত্ব দিতে পিছপা হতে পারে। মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস ও বাঙ্গালী জাতীর অহংকার উক্ত বিজয় দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালন পূর্বক যুদ্ধের ইতিহাস ও গৌরবগাথা দিন গুলি চলমান ও আগামী প্রজন্মের সামনে তুলে ধরতে উক্ত ঘৃণ্য আসর বসানোর সুযোগ না দিতে প্রশাসন সহ সংশ্লিষ্ট মেলা কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি কামনা করেছেন সচেতন সমাজমহল।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT