টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ঈদগাঁওতে স্কুল ছাত্রী অপহৃত না স্বেচ্ছায় পলায়ন ?

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১১৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। ঈদগাঁওর ইসলামাবাদে স্কুল ছাত্রী অপহৃত হয়েছে না স্বেচ্ছায় পালিয়ে গেছে তা নিয়ে সৃষ্ট হয়েছে ব্যাপক ধু¤্রজালের। ৯ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্র দায়েরকৃত এক অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত রোববার বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে একদল দূস্কৃতকারী শামিনা আক্তার নামের এক জেএসসি পরীক্ষার্থীকে তুলে নিয়ে যায়। সে ঈদগাহ্ জাহানারা ইসলাম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী এবং ইসলামাবাদ আওলিয়াবাদের সিএনজি চালক নুরুল আবছারের মেয়ে। অভিযোগটি দায়ের করেন ছাত্রীর পিতা নুরুল আবছার নিজেই। এতে তিনি তার প্রতিবেশী মালয়েশিয়া প্রবাসীর পুত্র বেলাল উদ্দিন ও তার পরিবারের কতিপয় সদস্যদের অভিযুক্ত করেন। অন্য সূত্র মতে, যে যুবকের বিরুদ্ধে এ অভিযোগ আনা হয়েছে ইতিপূর্বে সে শামিনাকে বিয়ে করতে পারিবারিক ভাবে প্রস্তাব পাঠিয়েছিল। কিন্তু তাতে মেয়ের অভিভাবক পক্ষ রাজি না হওয়ায় মেয়ের যোগসাজশে উক্ত ঘটনাটি সংঘটিত হতে পারে। অভিযোগদাতা নুরুল আবছার ঘটনাটি অপহরণ হিসেবে মন্তব্য করলেও জড়িতদের আইনের আওতায় এনে চাপ সৃষ্টি করতে অভিযোগ দেয়া হয় বলে জানান।

ঈদগাঁওয়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করলো বন বি২০১৩ ইং। কক্সবাজারের ঈদগাঁওয়ে ভিলেজারী জমির উপর জোর পূর্বক নির্মিত অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে দিয়েছে বন বিভাগ। ৯ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০ টায় দক্ষিণ মেহেরঘোনার ভিলেজার মো. কালু বসত ভিটায় ঘটনাটি ঘটে। প্রাপ্ত তথ্যে প্রকাশ, ঈদগাঁও দক্ষিণ মেহেরঘোনার বন জায়গীরদার মোহাম্মদ কালুর ২ একর ভিলিজারী জমির উপর ১৯৮০ সালে বন বিভাগ বেনজিয়াম গাছ রোপন করে। যা এলাকায় একাশি গাছ নামে পরিচিত। দীর্ঘদিন বন বিভাগের ভিলেজার হিসেবে দায়িত্ব পালন করায় স্থানীয় বন কর্তৃপক্ষ উক্ত জমি ঐ জায়গিরদারকে উক্ত জমিতে বসবাস ও চাষাবাদের অনুমতি দেন। কিন্তু স্থানীয় শফি উল্লাহ প্রকাশ বাইঘ্যা মাথাখিলা হিসেবে উক্ত জমির একাংশ দাবী করতে থাকলে তা স্থানীয় গ্রাম আদালত পর্যন্ত গড়ায়। বর্তমানেও বিরোধীয় বিষয়টি ইউপি চেয়ারম্যান সোহেল জাহান চৌধুরীর নিকট বিচারাধীন রয়েছে। তিনি তার পরিষদের মেম্বার জন্নাতুল ফেরদৌস, ছফুর আলম ও কেফায়েত উল্লাহ কেফাকে তদন্তের দায়িত্ব দিলে তারা সরেজমিন তদন্ত করে প্রতিবেদনও দাখিল করেন। এদিকে শফি উল্লাহ উক্ত বিচার কার্যক্রমের তোয়াক্কা না করে সোমবার সকালে সংঘবদ্ধ লোকজন নিয়ে বিরোধীয় জমিতে স্থাপনা নির্মাণ করে। এতে ভিলিজার পক্ষের লোকজন বাঁধা দিলে পরিস্থিতির অবনতি হতে থাকে। খবর পেয়ে ঈদগাঁও তদন্ত কেন্দ্র এসআই নাছির উদ্দিন, এএসআই ফারুখ ও প্রিয়তোষ পাল ঘটনাস্থলে যান। অন্যদিকে বন কর্তৃপক্ষের লোকজন ঘটনাস্থলে গিয়ে অবৈধ ভাবে নির্মিত শফি উল্লাহর স্থাপনা ভেঙ্গে গুঁড়িয়ে দেন। উল্লেখ্য, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মরহুম এজেডএম শাহজাহান চৌধুরী লুতু মিয়া এবং উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মরহুম আলমগীর চৌধুরী হিরু বিরোধীয় জমিটি মো. কালুর বলে ডিক্রি দেন।

কক্সবাজার সদর উপজেলায় পোনামাছ অবমুক্তকরণ উদ্বোধন করলেন জেলা প্রশাসক

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ০৯-০৯-২০১৩ ইং। কক্সবাজার সদর উপজেলার সরকারী ও প্রাতিষ্ঠানিক বিভিন্ন পুকুর ও জলাশয়ে রুই জাতীয় মাছের পোনা অবমুক্তকরণ কার্যক্রম উদ্বোদন করেছেন জেলা প্রশাসক মো. রুহুল আমিন। কক্সবাজার মৎস্য অধিদপ্তর প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও ৯ সেপ্টেম্বর সদর উপজেলা পরিষদ পুকুরে পোনা মাছ অবমুক্ত করে উক্ত কার্যক্রম শুরু করে। সাধারণ কর্মসূচির আওতায় সদর উপজেলাধীন বিভিন্ন এলাকার মোট ৬৩টি প্রাতিষ্ঠানিক পুকুর ও জলাশয়ে সর্বমোট ২৪৮ কেজি মাছের পোনা অবমুক্ত করা হয়েছে বলে মৎস্য অধিদপ্তর সূত্রে জানা গেছে। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মো. আব্দুর রহমান, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা (সদর) ড. মঈন উদ্দিন আহমদ, সদর উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন কর্মকর্তাবৃন্দ, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মনিরুল হক চৌধুরী, বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানগণ, জনপ্রতিনিধি, সুধীবৃন্দ ও সাংবাদিকসহ আরো গন্যমাণ্য ব্যক্তিবর্গ।  ভাগ

আতিকুর রহমান মানিক, ঈদগাঁও। মোবাইল- ০১৮১৮-০০০২২০, তারিখ- ০৯-০৯-

 

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT