টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ঈদগাঁওতে জমে উঠেছে ঈদ বাজার।

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ১৯ জুলাই, ২০১৩
  • ১৮৮ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

eid bazarএস. এম. তারেক, ঈদগাঁও, জেলার খাতুনগঞ্জ খ্যাত এবং গুরুত্বপূর্ন বানিজ্যকেন্দ্র কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁওতে ঈদ উপলক্ষ্যে রমজানের শুরু থেকেই জমে উঠতে শুরু করেছে  ঈদ বাজার। বছরের অন্যান্য সময়ের তুলনায় রমজানের ঈদই ব্যবসায়ীদের কাছে ব্যবসার রমরমা সময়। টানা এক মাস ধরে সব ধরনের পণ্যের ব্যাপক কেনা বেচাকে সামনে রেখে ঈদগাঁও বাজারের বিভিন্ন  মার্কেট ও ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরগুলোতে বেচাকেনার ভীড় বাড়ছে  একটু একটু করে  প্রতিদিন। গতকাল বাজারের বিভিন্ন মার্কেটগুলো ঘুরে দেখা গেছে, ঈদ উপলক্ষে ব্যবসায়ীরা অনেক আগে থেকেই ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছেন। ঈদ উপলক্ষে যে কোন প্রকার সমস্যা মোকাবেলায় পুলিশ পূর্ণ সতর্কাবস্থায় রয়েছে বলে জানালেন ঈদগাঁও পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের আইসি মনজুর কাদেও ভুইয়া। পুলিশের পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশও নিরাপত্তা রক্ষার দায়িত্ব পালন করছে মার্কেটগুলোতে। আগে সাধারণত ২০/২২ রোজার পর থেকেই ক্রেতারা ভীড় জমাত মার্কেটগুলোতে। কিন্তু গত কয়েকবছর ধরে এ সংস্কৃতিতে পরিবর্তন এসেছে। এখন মানুষ রোজা শুরুর পর থেকেই ঈদের কেনাকাটা শুরু করে দেয়। পোকখালীর বাসিন্দা মাস্টার রশিদ জানান, তিনি শপিং করতে এসেছেন বেদার মার্কেটে। এত আগে শপিং করতে আসার কারণ জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, ১০ রোজার পর থেকে মার্কেটগুলোতে যানজট অনেক বেড়ে যায় সে কারনেই তিনি মূলত আগেভাগে কেনাকাটার কাজটি সেওে  সেরে নিচ্ছেন বলে জানান। বাহারছড়া গ্রামের কলেজ ছাত্রী সাবেরা সৌখিন বস্ত্র বিপণী বিতান থেকে থ্রী পিচ্ দেখতে দেখতে জানালেন, রোজার শেষ দিকে কাজের চাপ ও মার্কেটগুলোতে ভীড় থাকে। শেষ সময়ে কাপড়ের দোকানগুলোতে পছন্দের কাপড় হয়ত নাও থাকতে পারে। তাই এত আগেভাগে তার পোশাক কেনা। অণ্যদিকে বাজারের অভিজাত এনাম কথ ষ্টোর, মনে রেখ নিউ মার্কেট, বেদার মার্কেট, হাজী মার্কেট, হকার মার্কেটসহ বিপনী বিতান ও ডিপার্টমেন্টাল ষ্টোরগুলোতে ক্রেতারদের ভীড় চোখে পড়ার মত। পুরুষ ক্রেতাদের পাশাপাশি নারী ক্রেতাদেও ভীড়ও চোখে পড়ার মত। সাথে ছোট ছোট শিশুরাত রয়েছেই। এনাম কথ ষ্টোরের সত্বাধিকারী নাজিম উদ্দিন জানালেন, শাড়ীর পাশাপাশি থ্রিপীচ ও লেহেঙ্গার কদরও কম নয় বিশেষ করে নারী ক্রেতাদের কাছে এবারের ঈদে। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় দামড়া একটু চড়া বলে জানালেন মনে রেখ শাড়ী বিতানে  ভারুয়াখালী থেকে শাড়ী কিনতে আসা গৃহবধু রাশেদা। এদিকে টেইলার্সগুলোতেও উপছে পড়া ভীড় পরিলক্ষিত হয়েছে। মূলত রোজার সময় যানজট, ভীড় ও ঝামেলা এড়াতে রোজা শুরুর পর থেকেই অনেকে কেনাকাটা শুরু করে দেন। সব মিলিয়ে ঈদগাঁওতে আস্তে আস্তে জমে উঠেছে রোজার ঈদের বাজার। ১৯ জুলাই’১৩

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT