টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

টেকনাফে ইয়াবা তল্লাশীর নামে নারী-পুরুষের গোপনাঙ্গে হাত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : শুক্রবার, ২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৩
  • ১৩৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হুমায়ূন রশিদ,টেকনাফ:::অ-বাজি এদেশত ইবা কি হারবার আইস্যে…..! এখন সীমান্ত জনপদ ও ইয়াবা নগরী খ্যাত টেকনাফের অলি-গলিতে প্রায় সময় সর্বস্তরের লোকজন বলতে শুনা যাচ্ছে অ-বাজি এদেশত ইবা কি হারবার চলের দে। যা নিয়ে লোকজনের মধ্যে হাস্যরসের চেয়ে ােভের সঞ্চার হয়েছে বেশী। ইয়াবা পাচার দমনের নামে মানবাধিকার লঙ্গনজনিত যানবাহনে হয়রানির শিকার বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার শত শত মানুষ সংবাদকর্মীদের মাধ্যমে জেলা প্রশাসনের দ্রুত হস্তপে কামনা করেছে।
খোঁজনিয়ে জানাযায়-সীমান্ত জনপদ টেকনাফের অপ্রতিরোধ্য ইয়াবা পাচার দমনে নির্দিষ্ট চেকপয়েন্ট ছাড়াও ভ্রাম্যমান কতিপয় চেকপোস্টে যানবাহন হতে যাত্রী নামিয়ে তল্লাশী চালানো হচ্ছে। মাঝে-মধ্যে অনেক পাচারকারীদের নিকট হতে চালান জব্দ করা হচ্ছে। আবার অনেক নিরীহ যাত্রীর পায়ুপথ,স্পর্শকাতর জায়গায় তল্লাশী চালিয়ে কিছু না পাওয়ায় মানবাধিকার লঙ্গন জনিত হয়রানির শিকার হচ্ছে বলে দাবী করছেন। এক হোমিও প্যাথিক ডাক্তার বলেন অ-বাজি এ দেশত ইবা কি হারবার আইস্যে দে। কক্সবাজার যাওয়ার পথে পথিমধ্যে গাড়ি হতে নামিয়ে পুরুষদের পাছাঁয় আঙ্গুল ঢুকিয়ে আর যুবতি,মধ্যবয়সী ও বৃদ্ধা নারীকে বেপরোয়াভাবে তল্লাশী চালানো হচ্ছে। কই কোন যাত্রীর নিকট কিছুই তো পেলনা। তাহলে পথের মধ্যে এই হয়রানির কেন। হ্নীলা এলাকার এক মাদ্রাসা শিক ও ােভের সুরে জানালেন আমরা শিা প্রতিষ্ঠানে চাকরী করি বিধায় নানা কাজে বিভিন্ন স্থানে যাতায়াত করতে হয়। কিন্তু পথিমধ্যে সিভিল পোশাকে আইন-শৃংখলা রার দায়িত্বে নিয়োজিতদের হাতে মানবাধিকার লঙ্গিত হয়রানি আমাকে ইিস্মত করে তুলেছে। এক এনজিও কর্মী জানালেন ভাইরে অফিসের কাজে কক্সবাজার যেতে মন চাইনা। কেন জানতে চাইতে বলে উঠেন ইয়াবা খুজঁতে পাঁছায় আঙ্গুল মারার জন্য। তদ্রুপ এক গ্রাম ডাক্তার এই ধরনের হয়রানিতে ােভ প্রকাশ করেন। স্থানীয় এক সচেতন যুব এই তল্লাশীর শিকার হয়ে চু লজ্জায় মাথা নিচু করে রাখা ছাড়া কোন ধরনের মন্তব্য করতে সম্মত হয়নি। যানবাহনের এক হেলপারও একবার এই তল্লাশীর কবলে পড়েছিল বলে স্বীকার করেন। টেকনাফের প্রত্যন্ত এলাকার চা দোকান-বেকারী, আড্ডা ও বিশেষ বৈঠক খানায় ইয়াবা তল্লাশীর নামে হয়রানির আলোচনা চলছে। সুতরাং ইয়াবা বহনের সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়া যানবাহনে নিরীহ যাত্রী হয়রানি প্রতিরোধে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের পাশাপাশি যানবাহন মালিকদেরও সোচ্চার হওয়া দরকার। তবে সর্বনাশা ইয়াবা ব্যবসা দমনে চিহ্নিত ইয়াবা ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধেও কঠোর পদপে গ্রহণ করা একান্ত প্রয়োজন।
ভূক্তভোগী টেকনাফের প্রত্যন্ত এলাকার জনসাধারন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে আসন্ন টেকনাফ উপজেলার মাসিক আইন-শৃংখলা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকা জেলা প্রশাসক রুহুল আমিনের সুদৃষ্টি আকর্ষণের জন্য আহবান জানিয়েছেন। ##############

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT