টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

ইয়াঙ্গুনে রোহিঙ্গা বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৪ সেপ্টেম্বর, ২০১২
  • ১১৭ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

হাফেজ মুহাম্মদ কাশেম…গত কয়েকদিন ধরে আরকানের মংডু শহরের প্রত্যেক রাখাইন পল¬ীগুলোতে ১০টি করে অস্ত্র বিতরণ করেছে নাসাকা-পুলিশ বাহিনী সরাসরী । এনিয়ে মংডুতে বসবাসরত রোহিঙ্গা মুসলিমরা যে কোন সময় বড় ধরণের ঘঠনা ঘঠতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করেছে। উক্ত বিষয় নিয়ে মুসলমানরা আতংকিত অবস্থায় জীবন যাবপর করেছে। মংডু শহরের চার কম্বু এলাকার কালা মসজিদ নামক এর পাশে রাখাইন গ্রামে দুদিন আগে একজন রাখাইন মারা যায়। কিন্তু উক্ত গ্রামের রাখ্যাইনরা লাশকে মুসলিমরা হত্যা করেছে বলে চাপিয়ে দেওয়ার জন্য মুসলিম গ্রামে গোপনভাবে ঢুকিয়ে দেওয়ার জন্য চেষ্ঠা চালাচ্ছে, তবে রোহিঙ্গা মুসলিমদের প্রহরায় এপর্যন্ত গ্রামে ঢুকাতে পারে নায়। বুছিদং শহের তিন চার দিন পূর্বে একজন রাখাইন বৃদ্ধা বয়স্ক মারা গেলে- রাখ্যাইন যুবকরা দা-চুরি দিয়ে আঘাত করে যাতে পরে মুসলিমরাই হত্যা করেছে বলে অভিযোগ করতে পারে। পরে উক্ত লাশকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ডাক্তার তদন্তের পর যানান- এটি মারা যাওয়ার পরে আঘাত করেছে। মিয়ানমার থেকে প্রাপ্ত খবরে জানা যায়- মংডু শহরের হাইচ্ছুরাতা এলাকার কামরিয়া বিল নামক গ্রামের দুইজন মুসলিম যুবক কে রাখাইন যুবকরা পুলিশদের সামনে হত্যা করেছে। নিহতরা হচ্ছে:- হোসাইন আহমদের ছেলে জসিমুল¬াহ (৩৫), গুলাম আহমদের ছেলে হাফিজুল¬াহ (৩০). পুলিশ নিরবতা পালন করেছেন। গত তিন দিন থেকে মায়ানামারের সাবেক রাজধানী ইয়ানগুনে একটি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রায় ১০০০ হাজার মানুষ অংশগ্রহণ করেছে বলে জানা গেছে। অনুষ্ঠানে শুধু মাত্র রোহিঙ্গাদের বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে। রোহিঙ্গারা আসলে কি আরকানের নাগরিক না কি বাংলাদেশের? রাখাইনদের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে যে, রোহিঙ্গারা আসলে বাংলাদেশের নাগরিক। তারা বাংলাদেশ থেকে এখানে এসেছেন। পরে অনুষ্ঠানের সভাপতির অনুমতি নিয়ে বুছিদং থানার নির্বাচিত সংসদ সদস্য শোয়েমং বলেন- আপনারা বাঙ্গালী বলে আমাদেরকে সম্ভোধন করবেন না, কারণ আপনারা যে কথাগুলো বলছেন তার সঠিক প্রমাণ দরকার। অন্যথায় গ্রহণযোগ্য হবে না। আপনারা এপর্যন্ত কোন ডকুমেন্ট দিতে পারেন নাই। আমাদের কাছে স্পষ্ট ডকুমেন্ট রয়েছে যে, রোহিঙ্গা মুসলিমরা আরকানের নাগরিক। পরে উক্ত অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারী বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত বলেন- আপনারা রোহিঙ্গা মুসলিমদের বাঙ্গালী বলবেন না কেন, আমরা তাদেরকে রোহিঙ্গা বলি, কারণ আমাদের ধারনা আরকান বার্মার অর্ন্তভুক্ত, সে জন্য তাদেরকে বার্মার নাগরিক বলি। আর যদি বাঙ্গালী বলেন, তা হলে তারা যে এলাকাতে বসবাস করে সে এলাকাগুলো বাংলাদেশের অর্ন্তভূক্ত করতে হবে অন্যথায় তাদেরকে বাঙ্গালী বলা যাবে না। এক দেশে বসবাস করে অন্যদেশের নাগরিক হওয়া যুক্তি সংঘত নয়।#####

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT