টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

ইসলামপুর নতুন অফিসে ১৫ দিনের ব্যবধানে অর্ধশতাধিক বাড়িতে চুরি

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : সোমবার, ১৯ আগস্ট, ২০১৩
  • ৯৬ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

আনোয়ার হোছাইন, ঈদগাঁও ####এলাকায় মাদক সেবীদের সংখ্যা উদ্বেগজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়াতে সম্প্রতি কক্সবাজার সদরের ইসলামপুর ইউনিয়নের নতুন অফিস জুম নগর (জউন্যাকাটা) এলাকায় বিগত ১৫ দিনের মধ্যে অর্ধ শতাধিক বাড়ি ঘরে চুরির ঘটনা ঘটেছে। এনিয়ে এলাকার লোকজন রাতের বেলায় চোর আতংকে দিন কাটাচ্ছে বলে জানিয়েছে। প্রাপ্ত তথ্যে জানা যায়, বিগত রমজানের শবে ক্বদরের দিন রাতে হঠাৎ উক্ত এলাকার মুরব্বী হেডম্যান মোক্তার আহমদের বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে। চোরের দল তেমন মূল্যবান কিছু নিতে না পারলেও পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী একে বিচ্ছিন্ন ঘটনা হিসেবে মনে করছিল। কিন্তু এর পর দিন থেকেই প্রতিদিন রাতে এলাকার কোন না কোন বাড়িতে চুরির ঘটনা ঘটে আসছে। এেেত্র চুরের দল হয়তো কৌশলে ঘরের দরজা, জানালা কিংবা ছিটকিনি খুলে ঘরে প্রবেশ করে অথবা গভীর রাতে তাদের টার্গেটকৃত ঘরের লোকজন যখন কোন সময় প্রকৃতির চাহিদা পূরণে দরজা খুলে বের হয় সে সুযোগে ভিতরে প্রবেশ করে উৎপেতে থাকে। পরে বাহিরে যাওয়া লোকটি ঘরে প্রবেশ করে ঘুমিয়ে পড়লেই চুরের দল তাদের ল্য হাসিল করে চলে যায়। সচেতন মহলের ধারণা যেহেতু দিনের পর দিন বিরামহীন ভাবে চুরির ঘটনা ঘটছে তাতে মনে হয় সংঘবদ্ধ চুরের দল একসাথে এলাকার কোন না কোন ঘরে হানা দিয়েই এ ঘটনা ঘটাচ্ছে। তবে তাদের বদ্ধমূল অভিমত সম্প্রতি উক্ত এলাকাসহ আশপাশের এলাকার বেকার কিছু যুবক মাদকাসক্ত হয়ে পড়াতে তাদের মাদকের খরচ যোগাতে এ চুরির ঘটনা ঘটাচ্ছে। যেসব বাড়িতে অল্প কদিনে চুরির সংঘটিত হয়েছে তার মধ্যে যে সব ঘর মালিকের নাম পাওয়া গেছে তারা হল সোনালী, কালু, সেলিম, ছালেহ আহমদ, মোস্তাক, ইমাম, ফজল মাঝি, কালু (২), শফি, জাফর, নাছির, মেহের আলী মৌলভীর খামার, নেচার, ছৈয়দ নুর, ইদ্রিচ, আমির হোছেন গং। তারা জানান, চোরের দল ঘরের চাউল, রান্না করা তরকারী থেকে শুরু করে সর্বস্ব নিয়ে যায়। উদ্বেগজনক হারে চোরের উপদ্রব বৃদ্ধি পাওয়ায় সমাজ সেবক আব্দু শুক্কুর জানান, সংঘবদ্ধ এ চোরের দলকে চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে  এলাকাবাসী উদ্যোগ নিতে হবে।

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT