টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!
শিরোনাম :
শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখা সবচেয়ে বড় ভুল : ডা. জাফরুল্লাহ মাদক কারবারি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত সাংবাদিক আব্দুর রহমানের উদ্দেশ্যে কিছু কথা! ভারী বৃষ্টির সতর্কতা, ভূমিধসের শঙ্কা মোট জনসংখ্যার চেয়েও ১ কোটি বেশি জন্ম নিবন্ধন! বাড়তি নিবন্ধনকারীরা কারা?  বাহারছড়া শামলাপুর নয়াপাড়া গ্রামের “হাইসাওয়া” প্রকল্পের মাধ্যমে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ ও বার্তা প্রদান প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া ঘর উদ্বোধন উপলক্ষে টেকনাফে ইউএনও’র প্রেস ব্রিফ্রিং টেকনাফের ফাহাদ অস্ট্রেলিয়ায় গ্র্যাজুয়েট ডিগ্রী সম্পন্ন করেছে নিখোঁজের ৮ দিন পর বাসায় ফিরলেন ত্ব-হা মিয়ানমারে পিডিএফ-সেনাবাহিনী ব্যাপক সংঘর্ষ ২শ’ বাড়ি সম্পূর্ণ ধ্বংস বিল গেটসের মেয়ের জামাই কে এই মুসলিম তরুণ নাসের

আমরা অশান্তি চাই না, আমরা শান্তিতে ভোট দিতে চাই

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০১৩
  • ৩২৯ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

yunusনোবেলজয়ী ড. মুহাম্মদ ইউনূস বলেছেন, ‘সকল দলের অংশগ্রহণে শান্তিপূর্ণভাবে নির্বাচন হতে হবে। নির্বাচন সকল দল অংশগ্রহণ না করলে সেই নির্বাচন আমরা মানব না। আমরা অশান্তি চাই না, আমরা শান্তিতে ভোট দিতে চাই।’

তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে চট্টগ্রামে আয়োজিত এক নারী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন।

ড. ইউনূস বলেন, ‘দেশের অবস্থা খুব খারাপ। সবার মধ্যেই আতঙ্ক ২৫ অক্টোবরের পর কি হবে? ঘর থেকে বের হতে পারব তো? স্বাধীন দেশে এত অনিশ্চয়তা, আতঙ্ক কেন? নির্বাচনও কি কারও খেয়াল খুশিমত হতে হবে? আমরা কি ভোট দিতে পারব না?’

সরকারকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, ‘আমরা কোনো দুর্যোগের মধ্যে পড়তে চাই না। এখনো সময় আছে, অশান্তির দরজা যাতে খুলে না যায়, সেই ব্যবস্থা নিন। আমরা শান্তিতে থাকতে চাই। নিয়মের মধ্যে থাকতে চাই।’

নগরীর লেডিস ক্লাথবে ‘শিক্ষা, শিল্প-সাহিত্য ও সমাজ কর্মে উদ্যোগী নারী সমাবেশ’ শীর্ষক এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে নোবেলজয়ী ইউনূস সুহৃদ-চট্টগ্রাম নামের একটি সংগঠন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. ইউনূস গ্রামীণ ব্যাংকের কার্যক্রম শুরুর দীর্ঘ বর্ণনা দিয়ে ব্যাংক নিয়ে সরকারের অবস্থানের কঠোর সমালোচনা করেন। ব্যাংকের ওপর কেউ হাত দিলে সেই হাত ভেঙে দেয়ার জন্যও নারীদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

ড. ইউনূস বলেন, ‘৮৪ লাখ মহিলার গ্রামীণ ব্যাংককে সরকার নিজেদের দখলে নিতে চাচ্ছে। এজন্য সরকারের সঙ্গে আমার দ্বন্দ্ব চলছে। সরকার আমার ওপর আক্রমণ করছে। আমরা গরীবদের জন্য ব্যাংক বানিয়েছি, কোনো সরকারের কাছে বেঁচে দেয়ার জন্য নয় কিংবা কোনো সরকারকে দখলে নিয়ে যেতে দেবার জন্য নয়।’

গ্রামীণ ব্যাংক রক্ষায় উপস্থিত নারীদের হাত তুলে সমর্থন দেয়ার আহ্বান জানিয়ে ইউনূস বলেন, ‘আপনাদের ব্যাংক রক্ষায় আপনাদেরই সোচ্চার হতে হবে। আপনাদের চেঁচিয়ে বলতে হবে, খবরদার গ্রামীণ ব্যাংকে হাত দেবেন না। যে হাত দেবেন, তার হাত ভেঙে দেব।’

তিনি নারীদের উদ্দেশে বলেন, ‘আমি দেখতে চাই, আপনাদের গলায় জোর বেশি নাকি একজনের গলার জোর বেশি?’

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT