হটলাইন

01787-652629

E-mail: teknafnews@gmail.com

সর্বশেষ সংবাদ

কক্সবাজারটেকনাফপ্রচ্ছদ

আজ ৫ উপজেলায় ৫২ প্রার্থীর পরীক্ষা

টেকনাফ নিউজ ডেস্ক:: উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে কক্সবাজারের ৫ উপজেলার ভোট যুদ্ধ ২৪ মার্চ। ভোট সুষ্ঠু এবং গ্রহণযোগ্য করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে । উপজেলা সমুহে পৌছে দেওয়া হয়েছে নির্বাচনী সরঞ্জাম। ভোটের দিক নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে ভোট গ্রহন কর্মকর্তাদের। ৫ উপজেলার ৫২ জন প্রার্থী চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়াম্যান পদে নির্বাচন করছেন। ২৩ মার্চ স্ব স্ব উপজেলা পরিষদ থেকে দায়িত্ব প্রাপ্ত ভোট গ্রহন কর্মকর্তারা সকাল ১১ টা থেকে নির্বাচনী সরঞ্জাম গ্রহন করেন।
জেলা নির্বাচন অফিস ও কয়েকজন সহকারি রির্টানিং কর্মকর্তাসূত্রে জানাযায়, ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিব্য উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলার উখিয়া, টেকনাফ, রামু, মহেশখালী এবং পেকুয়ায় ৩টি পদে ৫২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দীতা করছেন। এরমধ্যে উখিয়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হয়েছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী অধ্যক্ষ হামিদুল হক চৌধুরী এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ও বিনা প্রতিদ্বন্দীতায় নির্বাচিত হয়েছেন কামরুন্নাহার বেবি। ফলে উক্ত উপজেলায় নির্বাচন হবে পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে যেখানে প্রার্থী রয়েছেন ৫ জন।
টেকনাফে প্রার্থী রয়েছেন ১৪ জন। চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন। ভোট কেন্দ্র ৫৫টি এবং ভোট কক্ষ রয়েছে ২৫৪টি।
রামুতে প্রার্থী রয়েছেন ৯ জন। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ২ জন, ভাইস চেয়ারম্যান ৪ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ৩জন। কেন্দ্র রয়েছে ৬১টি এবং ভোট কক্ষ রয়েছে ৩০১ জন।
মহেশখালীতে ১২ জন প্রার্থীর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন। ভোট কেন্দ্র ৭৪টি এবং ভোট কক্ষ রয়েছে ৩২০টি।
এছাড়া পেকুয়ায় প্রার্থী রয়েছেন ১২ জন। এরমধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৬ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন প্রতিদ্বন্দীতা করছেন।
জেলা নির্বাচন অফিসসূত্রে জানাযায়, নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারসহ ৪৭ জন নিবার্হী ম্যাজিষ্ট্রেট, ১ জন করে জুডিশিয়্যাল ম্যাজিষ্ট্রেট নিয়োজিত থাকবে। পাশাপাশি নির্বাচনে শৃংখলা রক্ষায় নেওয়া হয়েছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। মাঠে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক পুলিশের পাশাপাশি ৩০ প্লাটুন বিজিবি, ৬ প্লাটুন র‌্যাব সবর্দা মাঠে থাকবে। এছাড়া টেকনাফ, মহেশখালীতে অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করবে কোস্টগার্ড। নির্বাচনের দিন সাধারন ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে উক্ত ৫ উপজেলায়। এছাড়া কক্সবাজার সদরে ৩১ মার্চ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার তপশিল ঘোষিত রয়েছে। কুতুবদিয়া উপজেলায় আইনি জটিলতার কারনে নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। শেষ মুহুর্তে প্রার্থীরা নির্ঘুম প্রচারনায় ব্যস্ত সময় পার করেছেন। প্রশাসনের কাছে প্রার্থীদের প্রত্যাশা চকরিয়া যেভাবে সুষ্ঠু ও অবাধ ভোট অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে সেভাবে যেন আগামিকাল ৫ উপজেলার নির্বাচন উপহার দেন।

Leave a Response

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.