টেকনাফ নিউজ:
বিশ্বব্যাপী সংবাদ প্রবাহ... সবার আগে টেকনাফের সব সংবাদ পেতে টেকনাফ নিউজের সাথে থাকুন!

কক্সবাজারে মামার হাতে ভাগ্নে খুন::::আজ মাগফেরাতের প্রথম দিন

Reporter Name
  • সংবাদ প্রকাশের সময় : রবিবার, ২১ জুলাই, ২০১৩
  • ১১৩ বার এই সংবাদটি পড়া হয়েছে

সাইফুদ্দীন মোহাম্মদ মামুন::::কক্সবাজার সদর উপজেলার পিএমখালী ইউনিয়নে মামার ছুরিকাঘাতে ভাগ্নে দেলোয়ার হোসেন (৩০) খুন হয়েছেন।

রোববার বিকাল ৩টার দিকে পিএমখালী ইউনিয়নের ছনখোলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত দেলোয়ার হোসেন ওই এলাকার ছৈয়দুর রহমানের ছেলে।

নিহতের ভাই আকতার হোসেন বাংলানিউজকে জানান, জমি নিয়ে তাদের দুই মামার মধ্যে সংঘর্ষ বেঁধে গেলে তার ভাই সংঘর্ষ থামাতে যায়।

এ সময় মামা সাবের আহমদ ও তার ছেলে নবাব মিয়ার ছুরিকাঘাতে দেলোয়ার হোসেন আহত হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

কক্সবাজার সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসীম উদ্দিন বাংলানিউজকে বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।

আলাহর অশেষ রহমত নিয়ে আজ শুর“ হয়েছে ১১ রমজান। মাগফেরাতের দশকের প্রথম দিনের সমস্ত প্রশংসা সেই আল্লাহর যিনি আমাদের একটি মাস সিয়াম সাধনার প্রথম দশ দিন পালন করিয়ে নিয়েছেন । আমরা প্রার্থনা করছি বাকি দু’টি দশকও  যেন সিয়াম সাধনার পাশাপাশি ফরজ ও নফল ইবাদত-বন্দেগী আরো গভীর মনোনিবেশের সঙ্গে সম্পন্ন করতে পারি।
বিগত রোজাগুলো যারা ছেড়ে এসেছেন তারা আজ থেকে তওবাহ করে সংযম সাধনায় ফিরে আসুন।
হযরত আবু হুরাইরাহ্ (রা.) থেকে বর্ণিত, রসুলুল্লাহ্ (স.) বলেছেন, দুই ব্যক্তি কাপড় বেচা-কেনা করছে, কাপড় সামনে রাখা আছে, এমন সময় কেয়ামত এসে যাবে, তারা দুইজনে কাপড়ের ব্যাপারে ফায়সালা করতে পারবে না, এমনকি কাপড়কে গুছিয়ে রাখতেও পারবে না। এক ব্যক্তি উটনির দুধ দোহন করে ঘরে নিয়ে চলছে এমন সময় কেয়ামত এসে যাবে, তা আর ব্যবহার করার সুযোগ তার মিলবে না। এক ব্যক্তি হয়তো পানির আধার তৈরি করছে, এমন সময় কেয়ামত এসে যাবে, সে ঐ আধার থেকে পশুকে পানি পান করাতেও পারবে না। কেউ খাবারের মুঠি মুখে তুলছে এমন সময় কেয়ামত এসে যাবে, ঐ মুঠি তার মুখ পর্যন্ত পৌঁছাতেও পারবে না, এর মধ্যে কেয়ামত হয়ে যাবে (তারগীব ও তারহীব, সহীহ ইবনে হিব্বান)।
মীযানের কাছে, যেখানে মানুষের আমল পরিমাপ করা হবে। তখন প্রত্যেকেই এ চিন্তায় নিমজ্জিত থাকবে যে, তার (নেকীর) পাল্লা ভারি হবে না হালকা হবে। সে সময় যখন আমলনামা হাতে দেয়া হবে এবং বলা হবে তোমার রেকর্ড পড়ো। তখন সকলেই এই দুশ্চিন্তায় নিমগ্ন থাকবে যে, তার আমলনামা ডান হাতে দেয়া হবে, নাকি পিছন দিক থেকে বাম হাতে দেয়া হবে এবং তখন, যখন জাহান্নামের ওপর রাখা পুলসিরাত পার হতে হবে (আবু দাউদ)।
সুতরাং চরিত্র গঠনের ও সওয়াব হাছিলের এই উৎকৃষ্ট মাসে আমরা পার্থিব সকল প্রকার লোভ-মোহ, হিংসা-বিদ্বেষ, পরনিন্দা ও পরশ্রীকাতরতা ঝেড়ে ফেলে পরকালের পাথেয় সঞ্চয়ে উদ্বুদ্ধ হই। আল্লাহ আমাদের সেই তাওফিক দান করুন, আমীন।
পবিত্র কুরআন কেনো বুঝে বুঝে পড়া উচিত

আল্লাহর দেয়া বছরের বার মাসের মধ্যে এক মাস হল শুধুমাত্র পবিত্র রমজানের মাস এবং সমস্ত গোনাহ মাফ করার মাস। তাই এই পবিত্র রমজান মাস এখন চলছে। দেশের প্রায় প্রতিটি মসজিদেই এখন তারাবীহ নামাজে কুরআন খতম দেয়া হচ্ছে। উদ্দেশ্য হল , বছরে অন্ততঃ একবার নামাযরত অবস্থায় শুদ্ধভাবে পবিত্র কুরআন শোনা এবং কুরআন থেকে আল্লাহর দেয়া নির্দেশনা গ্র্রহন করা। কিন্তু হাফেজ সাহেবের তেলোয়াত থেকে আমরা যা শুনছি তার কতুটুকু আমরা বুঝতে পারি? বিশ্বের মুসলিম জনসংখ্যার মাত্র ১৫ ভাগ হল আরব।আরবী জানেন এমন অনারব মুসলিমদের বাদ দিলে দেখা যায়, মুসলিম জনতার প্রায় ৮০ভাগই আরবী জানেননা। ফলে কুরআন বিশ্বের সর্বাধিক পঠিত পুস্তক হলেও, দুঃখজনকভাবে সর্বাধিক নাবুঝে পড়া গ্রন্থও বটে!  কুরআন এসেছে আমাদের সঠিক পথ দেখানোর জন্য।সেই কুরআনের বানী যদি আমরা বুঝতে না পারি, উপলব্ধি করতে না পারি তাহলে শুধু পাঠ করে কিংবা শ্রবণ করে কি আমরা আল্লাহর দেয়া দিক নির্দেশনার সন্ধান পাবো ?

সংবাদটি আপনার পরিচিতদের সাথে শেয়ার করুন...

Comments are closed.

More News Of This Category
©2011 - 2020 সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | TekNafNews.com
Developed by WebArt IT